ঢাকা, শনিবার, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ০১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

নদী বাঁচাতে ১০ সেপ্টেম্বর হবে ‘বুড়িগঙ্গা নদী কার্নিভাল’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৭, ২০২২
নদী বাঁচাতে ১০ সেপ্টেম্বর হবে ‘বুড়িগঙ্গা নদী কার্নিভাল’ বুড়িগঙ্গা নদী -ফাইল ছবি

ঢাকা: দূষণমুক্ত বুড়িগঙ্গার দাবিতে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর নদী উৎসব করা হবে। যৌথভাবে এই আয়োজন করছে বুড়িগঙ্গা নদী মোর্চা এবং ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ ও কনসোর্টিয়াম নামে কয়েকটি পরিবেশবাদী সংগঠন।

 বুড়িগঙ্গা নদী তীরে অবস্থিত কামরাঙ্গীরচর থানাধীন মুসলিমবাগ টাওয়ার মাঠ, থোটা গুদারাঘাট থেকে শুরু হবে ‘বুড়িগঙ্গা নদী কার্নিভাল’।

বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনী মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষনা দেন আয়োজকরা।

সংবাদ সম্মেলনে তারা বলেন, নদী মানুষের সম্মুখভাগ, কিন্তু মানুষের দ্বারা সংঘটিত বিভিন্ন দূষণ কার্যক্রমের মাধ্যমে নদী আজ পেছনের অংশে পরিণত হয়েছে। তাই নদী উৎসবের মধ্য দিয়ে নদীদূষণ রোধে কাজ করতে জনগণকে উৎসাহিত করতে হবে।

তারা জানান, নদী দূষণ প্রতিরোধে নীতি নির্ধারক, সরকারি কর্মকর্তা, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, যুবক, তরুণ, গণমাধ্যমকর্মী, স্থানীয় সংগঠন এবং নদী পাড়ের সাধারণ জনগনের দৃষ্টি আকর্ষণ ও সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য এই আয়োজন করা হচ্ছে।

তারা আরও বলেন, নীতিনির্ধারকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করার উদ্দেশ্য হচ্ছে নদীদূষণ বিষয়টি যেন মূলধারার নীতিনির্ধারণী আলোচনায় স্থান পায়।

বুড়িগঙ্গা নদীকে বাঁচিয়ে রাখতে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর আয়োজিত এই উৎসবে যেসব কর্মসূচি রয়েছে সেগুলো হল- মুসলিমবাগ টাওয়ার মাঠে বুড়িগঙ্গা নদী উদ্বোধনী সমাবেশ। এই সমাবেশ সকাল ১০টায় শুরু হয়ে বেলা ১১টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত চলবে। এখান থেকে উৎসবের উদ্বোধন ঘোষণা করা হবে। মুসলিমবাগ টাওয়ার মাঠ সংলগ্ন থোটা গুদারাঘাট থেকে শতাধিক নৌকার বহর বুড়িগঙ্গা নদী তীর ঘেঁষে বাবু বাজার ব্রিজ হয়ে ঘুরে নদীর অপর পাড় দিয়ে খোলামোড়া ঘাট পর্যন্ত যাবে। খোলামোড়াঘাট থেকে নদীর ডান তীর ঘেঁষে আবার থোটা ঘাটের দিকে আসবে। থোটা মাঠে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের পর এই উৎসব শেষ হবে।

লিখিত বক্তব্যে ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ কনফোর্ডিয়ামের প্রধান শরীফ জামিল বলেন, সুসজ্জিত নৌযান নিয়ে শোভাযাত্রার মাধ্যমে নদী প্রদক্ষিণ করে আমরা জানিয়ে দিতে চাই, বুড়িগঙ্গা আমাদের প্রাণ, বুড়িগঙ্গা ঢাকা এবং ঢাকাবাসীর প্রাণ। আর তাই ঢাকাকে বাঁচিয়ে রাখতে হলে বুড়িগঙ্গা নদীকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। ঢাকার অন্যতম প্রধান নদী বুড়িগঙ্গাকে বাঁচাতে বুড়িগঙ্গা নদী মোর্চা এবং ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ কনসোর্টিয়ামের সম্মিলিত প্রচেষ্টা এই কার্নিভাল। আমরা আমাদের নদীকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করবোই এই শপথ নিয়ে আমাদের এই আয়োজন।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এবং বিশিষ্ট মানবাধিকারকর্মী সুলতানা কামাল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে গেষ্ট অব অনার হিসাবে উপস্থিত থাকবেন সংসদ সদস্য, ঢাকা-২ এর সংসদ সদস্য এড. কামরুল ইসলাম।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৩ ঘন্টা, ০৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
এমকে/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa