ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩০ মে ২০২৪, ২১ জিলকদ ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

বৃষ্টি নেই বলেই বাড়ছে তাপদাহ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০০৬ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০১৮
বৃষ্টি নেই বলেই বাড়ছে তাপদাহ গরমে শিশুরা পানিতে দুরন্তপনায় মেতে ওঠেছে। ফাইল ফটো

ঢাকা: পঞ্জিকায় শ্রাবণের শেষদিন মানে বর্ষা ঋতুরও শেষ। এই সময়ে মৌসুমী বায়ু বা বর্ষাকাল বাংলাদেশে প্রবল অবস্থায় বিরাজ করে। ফলে বর্ষা-বাদলে ভরে থাকে প্রকৃতি। 

কিন্তু শ্রাবণের শেষভাগে মৌসুমী বায়ু দুর্বল হয়ে পড়ায় বৃষ্টিপাতের পরিমাণও কমে গেছে। শেষ বর্ষায় রোদে পুড়ছে প্রকৃতি।

তবে শরতের শুরুতে বৃষ্টির আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।
 
মঙ্গলবার (১৪ আগস্ট) ৩০ শ্রাবণ। সকাল থেকেই মেঘমুক্ত আকাশ। গণগণে সূর্যরশ্মি তাপ ঢালছে প্রকৃতিতে। দুপুরে আবহাওয়া অধিদফতরের মিটারে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা উঠেছে ৩৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  

সূর্যের তাপ যেন শরীরে বিধে যাচ্ছে। অতি গরমে নাগরিক জীবনও দুর্বিসহ হয়ে পড়েছে। ঢাকার মতো সারা দেশেই প্রায় কম বৃষ্টি হচ্ছে গত কয়েক দিন।  
 
আবহাওয়া অধিদফতরের একজন আবহাওয়াবিদ বাংলানিউজকে বলেন, এই সময়ে রোদ বেশি থাকে। বৃষ্টি হচ্ছে না বলে গরমও বেশি অনুভূত হচ্ছে। গত কয়েকদিন ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে সামান্য পরিমাণে বৃষ্টি হচ্ছে। এই অবস্থা চলতে থাকবে আরো অন্তত ২-৩ দিন। এরপর বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে। আর তখন তাপমাত্রাও কমতে শুরু করবে।
 
গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় মাত্র ২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অধিদফতর। আর বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে কিশোরগঞ্জের নিকলীতে ৪৫ মিলিমিটার। দেশের অন্যান্য বিভাগগুলোতেও অতি সামান্য বৃষ্টি হয়েছে।
 
আবহাওয়া নিয়ে বিশেষায়িত ওয়েবসাইটগুলোর তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, ১৫ আগস্ট সামান্য বৃষ্টিপাত হতে পারে। মাঝে বিরতি দিয়ে আবার ১৯ আগস্ট থেকে টানা বৃষ্টি হবে। তবে ঈদের সময়ে কেমন বৃষ্টিপাত হবে তা জানতে আরো দু’একদিন অপেক্ষা করতে হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।  
 
বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি আরও ঘণীভূত হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপরূপে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এটি আরও ঘণীভূত হতে পারে।
 
মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ রাজস্থান, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, সুস্পষ্ট লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল,গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমী বায়ুবাংলাদেশের উপর সক্রিয় এবং উত্তর
বঙ্গোপসাগরে মাঝারী থেকে প্রবল অবস্থায় বিরাজমান রয়েছে।
 
সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাস বলছে, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।  

সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারী ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে।
 
২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।
 
পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার অবস্থায় বলা হয়, এই সময়ে আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হতে পারে পারে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৮ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০১৮
এমআইএইচ/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।