ঢাকা, সোমবার, ১০ আষাঢ় ১৪৩১, ২৪ জুন ২০২৪, ১৬ জিলহজ ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

সৈয়দপুরে আকস্মিক কালবৈশাখি ঝড়ে বাড়িঘরের ব্যাপক ক্ষতি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৬ ঘণ্টা, মে ৩০, ২০২৪
সৈয়দপুরে আকস্মিক কালবৈশাখি ঝড়ে বাড়িঘরের ব্যাপক ক্ষতি

নীলফামারী: নীলফামারীর সৈয়দপুরে আকস্মিক ঝড়ে গাছপালা এবং বাড়িঘরের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।  

বুধবার (২৯ মে) রাত পৌনে ২টার দিকে শুরু হওয়া এ ঝড় প্রায় ১৫ মিনিট স্থায়ী হয়।

এতে প্রচুর গাছপালা ভেঙে যায়, বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে বিদ্যুৎসংযোগ, তছনছ হয়ে যায় অসংখ্য কাঁচা ও আধাপাকা বাড়িঘর ও দোকানপাট।

শহরের মধ্যে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে সাহেবপাড়া, বাঁশাবড়ি আমিন মোড় এলাকায়। এ এলাকায় শতবর্ষের পুরোনো বিরাট একটি গাছ ঝড়ে উপড়ে পড়ায় আশপাশের বেশ কয়েকটি দোকান, হোটেল ও বাড়িঘরের ব্যাপক ক্ষতি হয়। এছাড়া আশপাশের এলাকা ও বিভিন্ন মহল্লাতেও গাছপালা ভেঙে যায়, উপড়ে পড়ে। উড়ে ও ভেঙে যায় বাড়িঘরের টিন। তার ছিঁড়ে বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে।

ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ভাই ভাই গার্মেন্টস, বরিশাল বিভাগীয় কল্যাণ সমিতির কার্যালয়, স্থানীয় হোটেল ও ক্ষতিগ্রস্ত বেশ কয়েকটি বাড়ির মালিকরা জানান, রাতে আকস্মিক ঝড়ে শতবর্ষী একটি বিশাল গাছ উপড়ে পড়ে এলাকায় ব্যাপক ক্ষতি হয়। ব্যবসাবাণিজ্য শেষ, বাড়িও ভেঙে গেছে আমাদের।  

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সকাল ১০টায় সৈয়দপুর আবহাওয়া অফিসের দেওয়া তথ্য মতে বুধবার রাত পৌনে ২টা থেকে রাত ২টা পর্যন্ত বয়ে যাওয়া এ কালবৈশাখি ঝড়ের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার। ঝড়ে সৈয়দপুর শহরের বিভিন্ন এলাকায় সড়কের পাশে গাছ ও বাড়িঘরের ব্যাপক ক্ষতি হয়।  পরে সকালে ভেঙে পড়া গাছপালা সরাতে শুরু করেন স্থানীয় জনগণ।  

এছাড়া ঝড়ে উপজেলার কামারপুকুর, বাঙালিপুর, খাতামধুপুর, কাশিরাম বেলপুকুর ও বোতলাগাড়ি ইউনিয়নে ফসলেরও ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় গাছপালা উপড়ে পড়ে চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।  

এদিকে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নূর ই আলম সিদ্দিক বলেন, আকস্মিক ঝড়ের কারণে সৈয়দপুর উপজেলায় বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় গাছপালা, কাঁচা ঘরবাড়ি ও উঠতি ফসলের বেশ ক্ষতি হয়েছে। তবে এখনও কোনো প্রাণহানির খবর পাওয়া যায়নি। আমরা ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণের চেষ্টা করছি।  

নীলফামারী-৪ আসনের সংসদ সদস্য সিদ্দিকুল আলম সিদ্দিক বলেন, ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতা করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫১ ঘণ্টা, মে ৩০, ২০২৪

এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।