ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিনোদন

অশ্লীল ভিডিও ধারণ ও প্রচারের অভিযোগে আটক অভিনেত্রী

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২১
অশ্লীল ভিডিও ধারণ ও প্রচারের অভিযোগে আটক অভিনেত্রী অভিনেত্রী গহনা বশিষ্ঠ

একতা কাপুরের ওয়েবসিরিজ ‘গন্দি বাত’র অভিনেত্রী গহনা বশিষ্ঠকে গ্রেফতার করেছে মুম্বাই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ। তার বিরুদ্ধে পর্ন ওয়েবসাইট চালানোর অভিযোগ রয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, রমরমিয়ে চলছিল গহনার পর্ন সাইটের ব্যবসা। উঠতি মডেল ও অভিনেত্রীদের দিয়ে অশ্লীল ভিডিও শুট করে চালানো হচ্ছিল পর্ন ওয়েবসাইট। আর তাতে সাবস্ক্রিপশন করতে একেকজন দর্শককে গুনতে হয় ২ হাজার রুপি।  

পুলিস সূত্রে গণমাধ্যমের খবর, গহনা বশিষ্ঠ যে পর্ন ওয়েবসাইটটি চালাচ্ছিলেন, তাতে তিনি ৮৭টি অশ্লীল ভিডিও আপলোড করা হয়েছে। অবশেষে রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি) মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চ গ্রেফতার করলো এ অভিনেত্রীকে।

প্রচুর মডেলিং ও প্রডাকশন হাউস এই চক্রের সঙ্গে যুক্ত। গহনা নিজেও একটি প্রডাকশন হাউস চালাতেন। সবাই জানত, সেখানে ওয়েব সিরিজ ও সিরিয়ালের কাজ হয়। বাস্তবে সেখানেই চলত পর্নগ্রাফির শুটিং। ছবিতে-বিজ্ঞাপনে অভিনয়ের সুযোগ করিয়ে দেওয়ার নামে জোর করে পর্ন ছবিতে অভিনয়ে বাধ্য করার অভিযোগ ওঠে গহনার সংস্থার বিরুদ্ধে। একাধিক অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নামে পুলিশ। পর্নগ্রাফি শুটের সঙ্গে যুক্ত থাকা পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। আটকদের জেরায় উঠে আসে অভিনেত্রী গহনা বশিষ্ঠের নাম।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, তিনজনের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে এই পর্নগ্রাফি চক্রের খোঁজ চালাচ্ছিল তারা।  মালাডের গ্রিন পার্ক বাংলোতে হানা দিয়ে শনিবার পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ইয়াসমিন বেগ খান ওরফে রোওয়া (প্রযোজনা ও পরিচালনা), প্রতিভা নালাওয়াড়ে (গ্রাফিক ডিজাইনার), মনু গোপাল দাস জোশি (অভিনেতা), ভানুসূর্যায়াম ঠাকুর (সহকারী) এবং মোহাম্মদ আসিফ (ক্যামেরাম্যান)- নামের পাঁচজনকে গ্রেপ্তারের পর জেরায় উঠে আসে গহনার নাম।  

অভিযোগের প্রমাণ হাতে পেয়ে অবশেষে ৭ ফেব্রুয়ারি মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চ গ্রেপ্তার করে গহনাকে। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মুম্বাই পুলিশ।

ক্রাইম ব্রাঞ্চ প্রপার্টি সেলের সিনিয়র ইন্সপেক্টর, কেদারি পাওয়ার জানিয়েছেন- বিজ্ঞাপনের জন্য নতুন মুখ চাই এই  অছিলায় বিজ্ঞাপন দিয়ে পর্নগ্রাফির ফাঁদ পেতেছে একটি চক্র, এমন খবর ছিল পুলিশের হাতে। ছবিতে কাজ পাইয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে পর্ন ছবিতে অভিনয়ে বাধ্য করত এই গ্যাং। টাকার প্রলোভনেও চুক্তি স্বাক্ষর করিয়ে চাপ দিয়ে অ্যাডাল্ট ছবিতে অভিনয়ে বাধ্য করা হতো।

এই চক্রের হাত থেকে একজন নির্যাতিতাকে উদ্ধার করে রিহ্যাবে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ এই চক্রের সঙ্গে যুক্তদের তিনটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সিজ করেছে। পর্ন ছবির সাবস্ক্রিপশন থেকে সংগৃহীত ৩৬ লাখ টাকাও রয়েছে ওই অ্যাকাউন্টগুলোতে। এ ছাড়া ছটি মোবাইল ফোন, একটা ক্যামেরা এবং প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম, ল্যাপটপ এবং নগদ  টাকা হেফাজতে নিয়েছে মুম্বাই পুলিশ।

ভারতীয় দণ্ডবিধি ও আইটি আইনের উপযুক্ত ধারায় গ্রেপ্তার পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, সবাই ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পুলিশ কাস্টডিতে পাঠিয়েছেন আদালত।

১৯৮৮ সালে ছত্তিশগড়ে জন্ম হয় গহনার। জন্মসূত্রে তার নাম বন্দনা তিওয়ারি। কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করেছেন। মডেল হিসেবে কেরিয়ার শুরু করেছিলেন। প্রথম কাজের অফার পেয়েছিলেন এক পোশাক তৈরির কোম্পানির কাছ থেকে। তারপর প্রায় ৭০টি বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন। টেলিভিশনে ক্যারিয়ার শুরু সঞ্চালক হিসেবে। স্টার প্লাসের ‘বেহনে’ ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।  

মুম্বাইয়ের গ্ল্যামার দুনিয়ায় গহনার পরিচিতি বাড়ে ২০১২ সালে মিস এশিয়া বিকিনি প্রতিযোগিতা জেতার পর থেকে। ‘ফিল্মি দুনিয়া’ সিনেমার মাধ্যমে বড়পর্দায় আত্মপ্রকাশ করেন তিনি। তারপর একাধিক হিন্দি ও তেলুগু সিনেমায় অভিনয় করেছেন গহনা। অল্ট বালাজির ‘গন্দি বাত’ সিরিজের তৃতীয় পর্বে স্বাতীর চরিত্রে অভিনয় করেন গহনা।  

এর আগে জাতীয় পতাকা কোমরে বেঁধে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন অভিনেত্রী গহনা। সেসময় দুষ্কৃতিকারীদের হামলার শিকার হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু পরে অভিযোগ ওঠে, প্রচার পাওয়ার জন্য টাকা দিয়ে পুরো ঘটনা সাজিয়েছিলেন গহনা। কিছুদিন আগে আবার একটি ওয়েব সিরিজের শুটিং করতে গিয়ে অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। পরে জানা যায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন অভিনেত্রী। তবে এবার বড় ধরণের কলঙ্ক নিয়েই গ্রেফতার হলেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০২১
এমকেআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa