ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ শাবান ১৪৪৫

বিনোদন

স্মৃতি উসকে দিয়ে ‘এক জীবন’ গানের নয়া রেকর্ড

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২৩
স্মৃতি উসকে দিয়ে ‘এক জীবন’ গানের নয়া রেকর্ড

জীবনের বিশেষ মুহূর্ত বা অনুভূতির মধ্যে অন্যতম হল প্রেমে পড়া। প্রেমে পড়লে স্বাভাবিকভাবেই রোমান্টিক গান শুনতেও দারুণ লাগে।

অগুণতি প্রেমের গান রয়েছে। তবে চলতি শতাব্দীর অন্যতম শ্রোতাপ্রিয় রোমান্টিক গান বলাই যায়, ‘এক জীবন’।

‘তোমায় ছেড়ে বহুদূরে যাবো কোথায়, এক জীবনে এত প্রেম পাবো কোথায়…’ এক যুগেরও বেশি সময় আগে প্রকাশিত গানের এমন কথাগুলো আজও শ্রোতাদের হৃদয়ে গেঁথে আছে।

গানটি শুনতেই এক যুগ আগের যারা যারা তরুণ ছিলেন তাদের অনেকের মনেই নতুন করে প্রেমের স্মৃতি জাগিয়ে তোলে। আজও কেঁদে অনেক ওঠে প্রেমিকের মন। গানের কথা থেকে সুর সঙ্গে ভিডিও যেন আজও মন ছুঁয়ে হয়। সেই প্রমাণ মিলল আরও একবার।  

সংগীত প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান লেজার ভিশন লিমিটেড-এর ফেসবুক পেজে নতুন করে গানটি প্রকাশ করা হয়েছে সোমবার (২৭ নভেম্বর)। এর মাত্র ২২ ঘণ্টায় ভিউ দাঁড়িয়েছে ২৩ মিলিয়নের বেশি, অর্থাৎ ২ কোটি ৩০ লাখের বেশি। এ থেকেই বোঝা যায়, গানটি আরও কতটা শ্রোতাদের হৃদয় জুড়ে রয়েছে।  

লেজার ভিশনে প্রকাশিত ভিডিওর কমেন্ট বক্সে মশিউর নামের একজন লেখেন, ‘অন্যতম প্রিয় একটা গান’। হৃদয় হালদার লেখেন ‘এক জীবনে, আমার জীবনের সেরা বাংলা গান’, আমিনুল হক লেখেন ‘অসাধারণ একটি গান ছিল এটা, সেই সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় গান’, সাইমা জাহান সারা লেখেন ‘আমার মায়ের প্রিয় গান’, মোহাম্মদ মারুফ লেখেন ‘এই গানে অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে’সহ এমন হাজারের ওপর কমেন্ট রয়েছে।   

দর্শকদের এমন প্রতিক্রিয়ায় গানটির মডেল অন্তু করিম নিজের অনুভূতি প্রকাশ করে সামাজিকমাধ্যমে। তিনি ফেসবুকে লেখেন, মাত্র ২২ ঘণ্টায় ৪৮ মিলিয়ন ভিউঅ এত বছর পরেও আপনাদের এই ভালোবাসার জন্য পুরো টিমের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।  

প্রসঙ্গত, অনুরুপ আইচের লেখা ‘এক জীবন’ গানে কণ্ঠ দিয়েছিলেন দূরবীন ব্যান্ডের গায়ক শহীদ ও কলকাতার শুভমিতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই দুই গায়কের অন্যতম মেগাহিট প্রজেক্ট ‘এক জীবন’। গানের মিউজিক কম্পোজিশন করেছিলেন আরেক গায়ক আরেফিন রুমি।  

চীনের ভালোবাসার সত্য ঘটনা অবলম্বনে গানের ভিডিও নির্মাণ করেছিলেন শিমুল হাওলাদার। এতে মডেল হিসেবে পাওয়া যায় অভিনেতা অন্তু করিম ও শায়না আমিনকে। তারাও রীতিমতো জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন গানটির মাধ্যমে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২৩
এনএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।