ঢাকা, সোমবার, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪ রজব ১৪৪৪

নির্বাচন ও ইসি

গাইবান্ধা-৫ উপ-নির্বাচনে ৪৩ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩২ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০২২
গাইবান্ধা-৫ উপ-নির্বাচনে ৪৩ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত

গাইবান্ধা: গাইবান্ধা-৫ (ফুলছড়ি-সাঘাটা) আসনে উপ-নির্বাচনে গোপন কক্ষে একজনের পরির্বতে আরেকজন ভোট দেওয়াসহ নানা অনিয়ম- জালিয়াতির ঘটনায় ৪৩ ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

বুধবার (১২ অক্টোবর) দুপুর ১২টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রিটার্নিং অফিসার ও রাজশাহী আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম।

তিনি জানান, সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলার তিনটি কেন্দ্রে আঙুলের ছাপ নেওয়ার পর ভোটারকে তাড়িয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। জালিয়াতির মাধ্যমে গোপন কক্ষে একজনের পরির্বতে আরেকজন ভোট দেওয়ার অভিযোগে ৪৩ কেন্দ্রের ভোট বন্ধ রাখা হয়েছে। আরও কেন্দ্র থেকে অভিযোগ আসছে। সেগুলোর ব্যাপারে এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

এর আগে বুধবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয় ভোটগ্রহণ। তা বিরতিহীন চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

এদিকে, সকাল থেকেই ভোট দিতে কেন্দ্রে আসেন ভোটাররা। প্রতিটি কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কম ছিল। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে উপস্থিতি বাড়তে থাকে।

অন্যদিকে জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রার্থী গোলাম শহীদ রনজু অভিযোগ করেন, ভোটগ্রহণ শুরুর পর পরই আওয়ামী লীগের লোকজন ভোটকক্ষ থেকে এজেন্ট বের করে দেওয়াসহ ভোটারদের আঙুলের ছাপ নিয়ে নৌকা মার্কায় ভোট দিতে শুরু করে। তার কর্মী-সমর্থকদের কেন্দ্র থেকে তাড়িয়ে দেওয়াসহ নানা অভিযোগও তোলেন তিনি।

যদিও আগে থেকেই সুষ্ঠ ভোট নিয়ে শঙ্কাসহ নানা অভিযোগ করে আসছিল জাতীয় পার্টিসহ প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীরা।  

গাইবান্ধা-৫ আসনটি ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলা নিয়ে গঠিত। উপ-নির্বাচনে সাঘাটা উপজেলায় ৮৮টি এবং ফুলছড়ি উপজেলায় ৫৭টিসহ মোট ১৪৫টি কেন্দ্রে ৯৫২টি বুথে ভোটগ্রহণ চলছে।  

এরমধ্যে সাঘাটা উপজেলার ১০টি ও ফুলছড়ি উপজেলার সাতটিসহ মোট ১৭টি ইউনিয়ন নিয়ে মিলে ৩ লাখ ৩৯ হাজার ৭৪৩ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৬৯ হাজার ৫৮৩ জন এবং নারী ভোটার ১ লাখ ৭০ হাজার ১৬০ জন।

আসনটিতে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরমধ্যে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মাহমুদ হাসান রিপন (নৌকা), জাতীয় পার্টির এ এইচ এম গোলাম শহীদ রনজু (লাঙল), বিকল্পধারা বাংলাদেশের জাহাঙ্গীর আলম (কুলা), স্বতন্ত্র প্রার্থী নাহিদুজ্জামান নিশাদ (আপেল) ও সৈয়দ মাহবুবুর রহমান (ট্রাক) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া টানা ৯ মাস মরণব্যাধি ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই শেষে গত ২২ জুলাই দিনগত রাত ২টায় যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। এ কারণে ওই আসনে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০২২
এসএ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa