ঢাকা, সোমবার, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪ রজব ১৪৪৪

নির্বাচন ও ইসি

গাইবান্ধা-৫ উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৩৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০২২
গাইবান্ধা-৫ উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে ভোটকেন্দ্র

গাইবান্ধা: নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে গাইবান্ধা-৫ (ফুলছড়ি-সাঘাটা) আসনে উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। এবারই প্রথম ইলেকট্রিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে আসনটিতে ভোট দিচ্ছেন ভোটাররা।

বুধবার (১২ অক্টোবর) সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া ভোটগ্রহণ বিরতিহীনভাবে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

সকাল থেকেই প্রতিটি কেন্দ্রের বাইরের তুলনায় ভেতরে ভোটারদের উপস্থিতি একেবারে কম। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে ভোটারদের উপস্থিতি বাড়বে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

সকাল ৯টায় সাঘাটা উপজেলার কঞ্চিপাড়া এম এ ইউ একাডেমি কেন্দ্রেও ভোটারের উপস্থিতি তেমন লক্ষ্য করা যায়নি।  

এদিকে, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন উপহার দিতে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্নের কথা জানিয়েছেন রিটার্নিং অফিসার ও রাজশাহী আলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম।

চার স্তুরের নিরাপত্তা ব্যবস্থার কথা জানিয়ে সাইফুল ইসলাম জানান, নির্বাচনি মাঠে আইনশৃঙ্খল রক্ষার দায়িত্বে প্রতিটি কেন্দ্রে ৪ জন পুলিশ সদস্য ও ১২ জন আনসার সদস্য সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবেন। এ ছাড়া ভোটের মাঠে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাবের ৯টি টিম, ৪ প্লাটুন বিজিবি ও ৫টি সাদা পোশাকের স্ট্রাইকিং ফোর্স দায়িত্বে রয়েছেন। তাছাড়া ১৭ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নির্বাচনি মাঠে থাকবেন।

এছাড়া ১ হাজার ২৪২টি সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় থাকছে সবগুলো ভোটকেন্দ্র।

গাইবান্ধা-৫ আসনটি ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলা নিয়ে গঠিত। এরমধ্যে সাঘাটা উপজেলার ১০টি ও ফুলছড়ি উপজেলার সাতটিসহ মোট ১৭টি ইউনিয়ন মিলে ৩ লাখ ৩৯ হাজার ৭৪৩ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৬৯ হাজার ৫৮৩ জন এবং নারী ভোটার ১ লাখ ৭০ হাজার ১৬০ জন।

তিনি আরও জানান, এ উপ-নির্বাচনে সাঘাটা উপজেলায় ৮৮টি এবং ফুলছড়ি উপজেলায় ৫৭টিসহ মোট ১৪৫টি কেন্দ্রে ৯৫২টি বুথে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

নির্বাচনে যেকোনো অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারের কথা জানিয়েছে পুলিশ সুপার মো. তৌহিদুল ইসলাম।  

তিনি বলেন, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ শেষ করতে মাঠে থাকবেন বিজিবি, র‍্যাবের মোবাইল টিম, পুলিশের মোবাইল টিম ও স্ট্রাইকিং ফোর্সের পাশাপাশি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট।

আসনটিতে পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে মাহমুদ হাসান রিপন, জাতীয় পার্টির এ এইচ এম গোলাম শহীদ রনজু (লাঙল), বিকল্পধারা বাংলাদেশের জাহাঙ্গীর আলম (কুলা), স্বতন্ত্র প্রার্থী নাহিদুজ্জামান নিশাদ (আপেল) ও সৈয়দ মাহবুবুর রহমান (ট্রাক)।

দুই উপজেলর উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রাখতে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের প্রার্থী জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী হলেও সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কাসহ নানা অভিযোগ রয়েছে জাতীয় পার্টিসহ প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের।  

অ্যাড. ফজলে রাব্বী মিয়া টানা ৯ মাস মরণব্যাধি ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই শেষে গত ২২ জুলাই দিনগত রাত ২টায় যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। এ কারণে ওই আসনটিতে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৯৩৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০২২
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa