ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

নির্বাচন ও ইসি

মনোনয়ন বাতিল হওয়ায় গড়াগড়ি করে কান্না প্রার্থীর

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬১৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩, ২০২৩
মনোনয়ন বাতিল হওয়ায় গড়াগড়ি করে কান্না প্রার্থীর

মানিকগঞ্জ: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় ফ্লোরে গড়াগড়ি করে কান্নাকাটি করেছেন মানিকগঞ্জ-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল আলী ব্যাপারী।

রোববার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে মানিকগঞ্জের তিনটি আসনের বৈধ প্রার্থীর নামের তালিকা প্রকাশ করেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা রেহেনা আক্তার।

ওই তালিকায় নিজের নাম না থাকায় আব্দুল আলী ব্যাপারী জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ের ফ্লোরে গড়াগড়ি করে কাঁদতে থাকেন। এ সময় তাকে নিরাপত্তাকর্মীরা উঠিয়ে বাইরে নিতে চাইলে তিনি হাউমাউ করে কাঁদতে থাকেন। তার এই কান্নাকাটি দেখে এগিয়ে আসেন মানিকগঞ্জ পৌরসভার মেয়র রমজান আলীসহ অন্যরা। তারা আব্দুল আলীকে সান্ত্বনা দেন।

জেলার তিনটি আসনে জমা হওয়া ৩৩টি মনোনয়নপত্রের মধ্যে যাচাই-বাছাই শেষে ১২টি বাতিল হয়েছে। বৈধ হয়েছে বাকি ২১টি মনোনয়নপত্র। মানিকগঞ্জ-১ আসনে ১০টি মনোনয়নপত্রের মধ্যে ছয়টি বাতিল হয়েছে এবং বৈধ হয়েছে চারটি। মানিকগঞ্জ-২ আসনে ১৪টি মনোনয়নপত্রের মধ্যে চারটি বাতিল হয়েছে এবং ১০টি বৈধ হয়েছে। মানিকগঞ্জ-৩ আসনে নয়টি মনোনয়নপত্রের মধ্যে দুইটি বাতিল হয়েছে, বৈধ হয়েছে সাতটি।

মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ার বিষয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল আলী ব্যাপারী বলেন, আমি (প্রধানমন্ত্রী) শেখ হাসিনার কাছে বলতে চাই, আমি যেন আমার ভোটটা দিয়ে মরতে পারি। আমার বিশ্বাস ছিল জনগণ ভোট দেবে, সংসদ ভবনে পাঠাবে। কিন্তু চক্রান্ত করে আমার মনোনয়ন বাতিল করা হলো।

মানিকগঞ্জ জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা রেহেনা আক্তার বলেন, মানিকগঞ্জের তিনটি আসনের মনোনয়নপত্রের যাচাই-বাছাইয়ের দিন ধার্য ছিল আজ। আমাদের প্রাপ্ত মনোনয়নপত্র ছিল ৩৩টি। যাচাই-বাছাইয়ে ১২টি বাতিল হয়েছে এবং যাদের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে তারা ৫ থেকে ৯ ডিসেম্বরের মধ্যে আপিলের সুযোগ পাবেন। আপিল যৌক্তিক হলে এর সমাধান পাবেন প্রার্থী।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৩, ২০২৩
এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।