ঢাকা, রবিবার, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

শিক্ষা

মোশতাককে শ্রদ্ধা

ইবির নিয়োগ বোর্ড থেকে ঢাবির সেই অধ্যাপককে অব্যাহতি

ইবি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৭ ঘণ্টা, আগস্ট ১০, ২০২২
ইবির নিয়োগ বোর্ড থেকে ঢাবির সেই অধ্যাপককে অব্যাহতি

ইবি (কুষ্টিয়া): জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যায় অভিযুক্ত খন্দকার মোশতাকের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধ্যাপক রহমত উল্লাহকে এবার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) এক বিভাগের শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

এর আগে অধ্যপক রহমত উল্লাহকে অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয় বলে জানা গেছে।

পাশাপাশি ইবির আরও একটি বিভাগের নিয়োগ বোর্ডের বিশেষজ্ঞ ঢাবির ক্লিনিক্যাল ফার্মেসি বিভাগের অধ্যাপক আব্দুর রহমানকেও অব্যহতি দেওয়া হয়েছে। অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুনীর্তি দমন কমিশনের (দুদক) মামলা থাকায় তাকে অব্যহতি দেওয়া হয়েছে।  

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) ইবির ২৫৫তম সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।  

বুধবার (১০ আগস্ট) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তর এ তথ্য জানা গেছে।

ঢাবির অধ্যাপক রহমত উল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের আল-ফিকহ অ্যান্ড লিগ্যাল স্টাডিজ বিভাগের নিয়ো বোর্ডের বিশেষজ্ঞ ছিলেন। অন্যদিকে অধ্যাপক আব্দুর রহমান ফার্মেসি বিভাগের নিয়োগ বোর্ডের বিশেষজ্ঞ ছিলেন।

জানা গেছে, গত ০৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৬টি বিভাগের জন্য আলাদা নিয়োগ নির্বাচনী বোর্ডের অনুমোদন দেন উপাচার্য অধ্যাপক শেখ আবদুস সালাম। এ সময় ওই দুই শিক্ষককে বোর্ডের সদস্য করা হয়। পরে তাদের নিয়ে বিতর্ক ওঠে।  

এর পরিপ্রেক্ষিতে সর্বশেষ সিন্ডিকেট সভায় বিষয়টি নিয়ে আপত্তি তোলেন সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু। পরে সভায় অন্য সদস্যদের সম্মতিতে অভিযুক্ত দুই শিক্ষককে বিশেষজ্ঞ থেকে অব্যাহতি দেয় সিন্ডিকেট।

এ বিষয়ে অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু সাংবাদিকদের বলেন, দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্ত ও খুনি মোশতাককে শ্রদ্ধা জানানো ব্যক্তিরা কি করে নিয়োগ বোর্ডের বিশেষজ্ঞ হতে পারে? এদের বাদ দেওয়ার প্রস্তাব করার পর সভায় অন্যরা একমত হলে তাদের বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

উপাচার্য অধ্যাপক শেখ আবদুস সালাম বাংলানিউজকে বলেন, তাদের পাণ্ডিত্য দেখে সদস্য করা হয়েছিল। একজনের নামে অভিযোগ ওঠে সদস্য নির্বাচনের পর। অন্যজনের বিষয়ে যখন বঙ্গবন্ধু হত্যা ও খন্দকার মোশতাকের বিষয় জড়িয়ে যান, তখন বিষয়টি নিয়ে সমস্যা দেখা দেয়।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১০, ২০২২
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa