ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ আগস্ট ২০২২, ১৭ মহররম ১৪৪৪

শিক্ষা

অনাগতকালেও জাতির শ্রেষ্ঠ গৌরব হবে পদ্মা সেতু: রবি ভিসি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫০ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০২২
অনাগতকালেও জাতির শ্রেষ্ঠ গৌরব হবে পদ্মা সেতু: রবি ভিসি

সিরাজগঞ্জ : রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ্‌ আজম বলেছেন, অনাগতকালেও জাতির সর্বশ্রেষ্ঠ গৌরব হবে পদ্মা সেতু। আর শেখ হাসিনা হবেন সেই গৌরবের মধ্যমণি।

শনিবার (২৫ জুন) সন্ধ্যায় পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবনে-১ এ লেকচার থিয়েটারে সভার আয়োজন হয়। এতে মুখ্য আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ্‌ আজম। সেখানেই কথাগুলো তিনি বলেন।

প্রফেসর ড. মো. শাহ্‌ আজম বলেন, পদ্মা সেতু শুধু একটি সেতু নয় এটি বাঙালির অহংকার। বাঙালি জাতি তার পিতার কাছে থেকে নেওয়া শিক্ষায় ‘বাঙালি জাতি কখনো মাথা নোয়াবার জাতি নয়’ উদ্দীপ্ত হয়ে সব ষড়যন্ত্রের বেড়াজাল ছিন্ন করেছে। সব বাধাবিপত্তি অতিক্রম করে তা আবারও প্রমাণ করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উপাচার্য আরও বলেন, বাংলাদেশের মানুষ আজ মাথা উঁচু করে বলতে পারে বাংলাদেশ কারও কাছে মাথা নত করতে শেখে নাই। বাংলাদেশের পথ চলা বীরের মতো। সুতরাং, পদ্মা সেতু আমাদের অহংকার।

শুধুমাত্র অর্থনৈতিক উন্নয়নই নয়, দুই পারের মানুষের বিচ্ছিন্ন সাংস্কৃতিক ও সামাজিক মেলবন্ধন হয়েছে পদ্মা সেতুর মাধ্যমে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মো. সোহরাব আলীসহ বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে একাডেমিক ভবন-২ এ বৃক্ষরোপণের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্‌ আজম। এরপর আনন্দ শোভাযাত্রা শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবন-১ এ গিয়ে শেষ হয়।
 
আলোচনা সভা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

বাংলাদেশ সময় : ১৯৫২ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০২২
এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa