ঢাকা, শুক্রবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ মে ২০২২, ২৫ শাওয়াল ১৪৪৩

শিক্ষা

মাদরাসা অধ্যক্ষকে গালি, বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ সম্পাদকের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০২২
মাদরাসা অধ্যক্ষকে গালি, বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ সম্পাদকের

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগগঞ্জের অন্যতম খ্যাতনামা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জামি’আ আরাবিয়া দারুল উলূম দেওভোগ মাদরাসার অধ্যক্ষকে গালি দেওয়ায় শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করেছেন পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শাহনেওয়াজ। শনিবার (২২ জানুয়ারি) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, মাদরাসার দুটি ভবন সড়কের দু’পাশে হওয়ায় ছাত্রদের রাস্তা পারাপার হতে অসুবিধা হয়। ছাত্রদের দাবির প্রেক্ষিতে একজন দানবীর দুটি ভবনের উপরে সংযোগ ব্রিজ/ সিঁড়ি নির্মাণের সব উপকরনের ব্যবস্থা করে দেন। এর প্রেক্ষিতে কাজ শুরু করা নিয়ে শনিবার অধ্যক্ষের কক্ষে বৈঠকে বসেন মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শাহনেওয়াজ।

এ সময় তিনি এ কাজ করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে এক পর্যায়ে অধ্যক্ষ মাওলানা আবু তাহের জিহাদীকে গালি দেন। বিষয়টি দ্রুত মাদরাসায় ছড়িয়ে পড়লে ছাত্ররা তাকে অবরুদ্ধ করে পদত্যাগ চেয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন।

এক পর্যায়ে শাহনেওয়াজ অধ্যক্ষের কাছে ক্ষমা চেয়ে পদত্যাগ করেন। পরে তাকে বের হয়ে যেতে দেন ছাত্ররা।

শাহনেওয়াজ জানান, আমি কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করেছি। আমি আর কখনও,  কোন দিন এই মাদরাসায় আসব না। আর কোন কার্যক্রমেও অংশ নেব না।

অধ্যক্ষ মাওলানা আবু তাহের জিহাদী জানান, তিনি স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করেছেন। ছাত্রদের চাপে নয়, নিজের ভুল বুঝতে পেরে তিনি পদত্যাগ করেছেন।

ছাত্ররা জানান, তিনি প্রায় সময় মাদরাসার নানা উন্নয়ন কাজে প্রভাব বিস্তার করেন। অনেক কাজ তিনি বাধাগ্রস্ত করেছেন। তার আচরণও সন্তোষজনক নয়।

বাংলাদেশ সময়: ২১২০ ঘণ্টা, ২২ জানুয়ারি, ২০২২
এমআরপি/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa