ঢাকা, রবিবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ মে ২০২২, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩

শিক্ষা

বেরোবিতে ১০০ শতাংশ শিওর চান্স, থানায় জিডি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯২৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩, ২০২২
বেরোবিতে ১০০ শতাংশ শিওর চান্স, থানায় জিডি

রংপুর: অসাদুপায় অবলম্বন করে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) ১০০ শতাংশ চান্সের প্রচারণা চালাচ্ছে একটি প্রতারক চক্র।  এ অবস্থায় ২০২০-২১ থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর।

 

শনিবার (১ জানুয়ারি) থেকেই ‘brur চান্স ১০০ শতাংশ করে দেব’ নামের একটি গ্রুপ থেকে ম্যাসেজের স্ক্রিনশট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।  

এতে বলা হয়, ‘যারা বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পায়নি তাদের চান্স পেয়ে দেব। এতে খরচ হবে ২০ হাজার টাকা। অগ্রিম পেমেন্ট করতে হবে ৮শ ৫০ টাকা’।  

এদিন বিকেলে একই গ্রুপ থেকে আরেকটি মেসেজের স্ক্রিনশট ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।  

এতে বলা হয়, ‘যারা রেজাল্ট চেঞ্জ করার জন্য ৮শ ৫০ টাকা দিয়েছেন তাদের রেজাল্ট চেঞ্জ হয়েছে। বিকেল ৫টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে রেজাল্ট পাবেন। বাকি টাকা ভর্তির পর দেবেন’।

এ বিষয়ে অভিযোগপত্রে প্রক্টর উল্লেখ করেন, শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) রাতে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তিপরীক্ষার তালিকা প্রকাশ করা হয়। মেধা তালিকা প্রকাশের পর শনিবার (১ জানুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে একটি চক্র জালিয়াতির মাধ্যমে ভর্তির প্রলোভন দিচ্ছে। আমরা আশঙ্কা করছি, অসাধু চক্রটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির বিষয়ে ভুয়া তথ্য সরবরাহ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান ক্ষুণ্নসহ প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার পায়তারা করছে। শনিবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর গোলাম রব্বানী রংপুর মেট্রোপলিটন তাজহাট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।  

রংপুর মেট্রোপলিটন তাজহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আখতারুজ্জামান প্রধান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষে জনসংযোগ তথ্য ও প্রকাশনা দপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ আলী বলেন, যে মোবাইল নম্বর দিয়ে জালিয়াত চক্রটি গ্রুপের অ্যাকাউন্ট খুলেছে তা অনুসন্ধান করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ভর্তি সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। এর অর্থ এটি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি সংক্রান্ত প্রতারণ চক্র। জালিয়াতির মাধ্যমে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার সুযোগ নেই। মেধা তালিকা থেকেই যথাযথ নিয়ম অনুসারে ভর্তি হতে হবে।

গত শুক্রবার রাত ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির প্রথম মেধা তালিকা প্রকাশ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তালিকা ও ভর্তি বিজ্ঞপ্তি থেকে প্রাপ্ত তথ্যমতে, জিএসটি গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রথম মেধা তালিকা প্রকাশ করা হয়। বিভাগগুলোতে আসন খালি থাকা সাপেক্ষে ১১ জানুয়ারি দ্বিতীয় মেধা তালিকা প্রকাশ করা হবে। তাদের ১৬ ও ১৭ জানুয়ারি সাক্ষাৎকার ও ভর্তি অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৩, ২০২২
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa