ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

শিক্ষা

ঠাকুরগাঁওয়ে করোনা আক্রান্ত ১৩ শিক্ষার্থী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১০৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১
ঠাকুরগাঁওয়ে করোনা আক্রান্ত ১৩ শিক্ষার্থী

ঠাকুরগাঁও: করোনা আক্রান্ত হয়েছে ঠাকুরগাঁও শহরের তিনটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ১৩ জন শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তিনটির সংশ্লিষ্ট শ্রেণির পাঠদান বন্ধ রাখা হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ঠাকুরগাঁও সরকারি শিশু পরিবার বালিকা শাখার উপতত্ত্বাবধায়ক রিক্তা বানু এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, আক্রান্তরা ঠাকুরগাঁও সরকারি শিশু পরিবার বালিকা শাখার সদস্য। তারা শিশু পরিবারে থেকে শহরের বিভিন্ন বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করে। করোনা শনাক্ত হওয়ার পর তাদের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

সরকারি শিশু পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বালিকা শাখায় ৬৫ জন সদস্য রয়েছে। তারা শহরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পড়ালেখা করে। ১৬ সেপ্টেম্বর শিশু পরিবারের এক সদস্যর করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। সে শহরের হাজীপাড়া আদর্শ উচ্চবিদ্যালয়ে পড়ে। এরপর আরও কয়েকজনের মধ্যে উপসর্গ ছড়িয়ে পড়ে। এরপর তাদের বিদ্যালয়ে যাওয়া বন্ধ করে দেওয়া হয়। ২০ সেপ্টেম্বর শিশু পরিবারের ২৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। করোনা পরীক্ষার ফলাফলে ১৩ জনের পজিটিভ আসে।

রিক্তা বানু জানান, ওই ১৩ জনের মধ্যে পাঁচজন করে সদর উপজেলার বাহাদুরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও হাজীপাড়া আদর্শ উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। অন্য তিনজন স্থানীয় সোনালী শৈশব নামের একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী। তাদের কোয়ারেন্টিনে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। শুক্রবার শিশু পরিবারের আরও ২১ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে এখনো ফলাফল জানা যায়নি। পর্যায়ক্রমে শিশু পরিবারের সব সদস্যের করোনা পরীক্ষা করা হবে।

বাহাদুরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফারহানা পারভীন বলেন, চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণির ওই পাঁচ শিক্ষার্থী ১৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিদ্যালয়ে উপস্থিত ছিল। তখন তাদের মধ্যে করোনার কোনো লক্ষণ ছিল না। এরপর থেকে তাদের অনুপস্থিত দেখে শিশু পরিবারে যোগাযোগ করে জানা যায়, তারা করোনায় আক্রান্ত। তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়। তাদের মৌখিক নির্দেশে চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণির পাঠদান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে প্রথম শ্রেণি থেকে তৃতীয় শ্রেণির পাঠদান কার্যক্রম চালু রাখা হয়েছে।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভায় এ বিষয়ে আলোচনা হয়। এরপর সংশ্লিষ্ট শ্রেণির পাঠদান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এখন থেকে কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত হলে সংশ্লিষ্ট শ্রেণির পাঠদান বন্ধ রাখা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১১১০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১
এমআরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa