ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ জুলাই ২০২২, ০০ জিলহজ ১৪৪৩

অর্থনীতি-ব্যবসা

সায়েম সোবহান আনভীরের হাত ধরে স্বর্ণ ব্যবসায় স্বর্ণযুগ ফিরবে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১২ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০২২
সায়েম সোবহান আনভীরের হাত ধরে স্বর্ণ ব্যবসায় স্বর্ণযুগ ফিরবে বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন পটুয়াখালী জেলা শাখা আয়োজিত মতবিনিময় সভা

পটুয়াখালী: বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বাজুস) সভাপতি সায়েম সোবহান আনভীরের হাত ধরেই স্বর্ণ ব্যবসায় স্বর্ণযুগ ফিরে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন বাজুসের সাবেক সভাপতি ও স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিস্ট্রিক মনিটরিংয়ের চেয়ারম্যান ডা. দিলীপ কুমার রায়।

সোমবার (১৬ মে) বিকেলে পটুয়াখালী প্রেসক্লাবের ড. আতাহার উদ্দিন মিলনায়তনে বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন পটুয়াখালী জেলা শাখা আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি একথা বলেন।

দিলীপ কুমার রায় বলেন, সারা বাংলাদেশের সব স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের এক ছাতার নিচে নিয়ে আসতে হবে। সায়েম সোবহান আনভীর সংগঠনের নেতৃত্বে আসতে চাননি। আমাদের তাগিদে আমরা তাকে নিয়ে এসেছি। আমাদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে আমাদের সঙ্গে যুক্ত হওয়ায় বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীরকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই।

বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন পটুয়াখালী জেলা শাখার সভাপতি বিপুল কান্তি দাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সুবল কান্তির পরিচালনায় মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল’ অ্যান্ড মেম্বারশিপের সহ-সম্পাদক ও ভাইস চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান, স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিস্ট্রিক্ট মনিটরিংয়ের সহ-সম্পাদক ও সদস্য সচিব মো. জয়নাল আবেদীন খোকন, বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল’ অ্যান্ড মেম্বারশিপের কার্যনির্বাহী সদস্য ও সদস্য সচিব মো. রিপনুল হাসান, বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিস্ট্রিক্ট মনিটরিংয়ের কার্যনির্বাহী সদস্য পবিত্র চন্দ্র ঘোষ। মতবিনিময় সভায় পটুয়াখালী জেলার সকল পর্যায়ের স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা অংশ নেন।

বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল’ অ্যান্ড মেম্বারশিপের সহ-সম্পাদক ও ভাইস চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান বলেন, বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সায়েম সোবহান আনভীরের দায়িত্ব গ্রহণের পর তার সহযোগিতায় এই প্রথম আমরা দেশব্যাপী জেলা, উপজেলা ও গুরুত্বপূর্ণ সাংগঠনিক ইউনিটগুলোতে মতবিনিময় সভা করতে পেরেছি।

বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল’ অ্যান্ড মেম্বারশিপের কার্যনির্বাহী সদস্য ও সদস্য সচিব মো. রিপনুল হাসান বলেন, বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতির নেতৃত্বে দেশের সব জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের সব স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য করে, সবার অধিকার ও সুরক্ষা নিশ্চিত করতে আমরা কাজ করছি। জুয়েলারি ব্যবসায় তরুণদের সম্পৃক্ত করে উদ্যোক্তা সৃষ্টির মাধ্যমে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে।

স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিস্ট্রিক্ট মনিটরিংয়ের সহ-সম্পাদক ও সদস্য সচিব মো. জয়নাল আবেদীন খোকন বলেন, সব স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে একে অপরের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক রেখে একে অপরের বিপদে আপদে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। স্বর্ণ কেনাবেচার সময় ক্যাশ মেমোর ব্যবহার বাড়াতে হবে। এছাড়াও পরিচয় শনাক্তের জন্যে এনআইডি ও মোবাইল নম্বর সংরক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৫ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০২২
এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa