ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৮ জিলহজ ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

মাস্টারকার্ডের দ. এশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও ভারতের কান্ট্রি অফিসার নিখিল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৪০ ঘণ্টা, জুন ২৪, ২০২১
মাস্টারকার্ডের দ. এশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও ভারতের কান্ট্রি অফিসার নিখিল

ঢাকা: দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ডিভিশন প্রেসিডেন্ট ও ভারতের কান্ট্রি করপোরেট অফিসার হিসেবে নিখিল সাহনির নাম ঘোষণা করেছে মাস্টারকার্ড। তিনি পোরুষ সিংয়ের কাছ থেকে দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন।

পরবর্তীতে পোরুষ সিং সিঙ্গাপুরে মাস্টারকার্ডের নতুন পদে নিযুক্ত হবেন।
 
ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকিং, স্ট্যাট্রেজি, করপোরেট, কমার্শিয়াল, এসএমই, রিটেইল, ব্র্যাঞ্চ ও গভর্নমেন্ট ব্যাংকিং খাতে প্রায় ২৫ বছরের অভিজ্ঞতা নিয়ে মাস্টারকার্ডে যোগ দেন নিখিল। নতুন দায়িত্বে তিনি বাংলাদেশ, শ্রীলংকা, নেপাল, মালদ্বীপ, ভুটান ও ভারতসহ এ উপমহাদেশজুড়ে মাস্টারকার্ডের সার্বিক কার্যক্রম, সেবার বিস্তৃতি ও সমস্যা সমাধানে কাজ করবেন।

মাস্টারকার্ডের এশিয়া প্যাসিফিক কো-প্রেসিডেন্ট আরি সারকার বলেন, অভ্যন্তরীণ ব্যবসা সম্প্রসারণ এবং পাবলিক ও প্রাইভেট সেক্টরে পার্টনারশিপের পারস্পরিক সুবিধা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে নিখিল নিজেকে ধারাবাহিকভাবেই প্রমাণ করেছেন।
 
তিনি আরও বলেন, দক্ষিণ এশিয়াজুড়ে সময়োপযোগী ডিজিটাল পেমেন্ট ইকোসিস্টেম গড়ে তুলতে কৌশলগতভাবে টেকনোলজি, ইনফ্রাস্ট্রাকচার ও ইনোভেশনের ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে মাস্টারকার্ড। ভারতের আর্থিক সেবাখাতে নিখিলের দীর্ঘ অভিজ্ঞতা মাস্টারকার্ডের এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সহায়ক হবে।  

আরি সারকার বলেন, আর্থিকভাবে অন্তর্ভুক্তি ও টেকসই অর্থনীতির উন্নয়নে নিখিলের ভাবনা এবং কৃষি ও এমএসএমইএস’র মতো গুরুত্বপূর্ণ খাতে তার গভীর জ্ঞান নিশ্চিতভাবেই আমাদের জন্য সহায়ক হবে। নিখিলকে টিমে পেয়ে আমি ভীষণ আনন্দিত। আশা করছি তার নেতৃত্বে কোম্পানি পরবর্তী ধাপে দ্রুতই অগ্রসর হবে।
 
নিখিল বলেন, নিরাপদ, সহজ ও স্মার্ট লেনদেন পদ্ধতির মাধ্যমে সর্বত্র সবার কাছে ডিজিটাল ইকোনমির সুফল পৌঁছে দিয়ে একটি শক্তিশালী ডিজিটাল ইকোসিস্টেম গড়ে তোলার ক্ষেত্রে মাস্টারকার্ডের এ মিশনে আমি অনুপ্রাণিত। দক্ষিণ এশিয়ায় যে কোম্পানিটির দীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে এবং যারা এ অঞ্চলের অর্থনৈতিক উন্নয়নে দৃঢ়ভাবে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, তেমন একটি প্রতিষ্ঠানে কাজ করা আমার জন্য নিঃসন্দেহে একটি রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা। এখানে অবিশ্বাস্য রকম উদ্ভাবনী ও অপার সম্ভাবনা রয়েছে। এ অঞ্চলে মাস্টারকার্ডের বিনিয়োগ, পণ্য ও সেবার মান এবং অগ্রগতিতে আমি আত্মবিশ্বাসী। সবার জন্য সর্বত্র অন্তর্ভুক্তিমূলক, টেকসই, নিরাপদ ও সংযুক্ত ব্যবসার সুযোগ সৃষ্টির এটিই উপযুক্ত সময় বলে আমি মনে করি।

নিখিল সবশেষ ইয়েস ব্যাংকের সিনিয়র গ্রুপ প্রেসিডেন্ট, অ্যাগ্রিকালচারাল, গভর্নমেন্ট অ্যান্ড এমএনসি ব্যাংকিং ও নলেজ ব্যাংকিংয়ের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তিনি ইয়েস ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাকালীন টিমেও ছিলেন। যেখানে তিনি আঞ্চলিক ও জাতীয় পর্যায়ে ১৭ বছর বিভিন্ন পণ্য ও সেবার ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে কাজ করেছেন। এলঅ্যান্ডটিতে যোগদানের মাধ্যমে নিখিল তার কর্মজীবন শুরু করেন। পরবর্তীতে তিনি টাইমস গ্রুপে যোগ দেন। তিনি রাবো ইন্ডিয়া ফিন্যান্সের (যেটি রাবো ব্যাংকের শতভাগ সাবসিডিয়ারি) সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন।
 
ছাত্রজীবনে তিনি আহমেদাবাদের ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্টের শিক্ষার্থী ছিলেন। এছাড়া চন্দ্রিগড়ের পাঞ্চাব ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ থেকে ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়েও তিনি ডিগ্রি নিয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৮ ঘণ্টা, জুন ২৪, ২০২১
এসই/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa