ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮, ০৫ আগস্ট ২০২১, ২৫ জিলহজ ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

ওয়ালটন এসি কিনে ডিপ ফ্রিজ ফ্রি পাওয়ার হিড়িক

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩০৮ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০২১
ওয়ালটন এসি কিনে ডিপ ফ্রিজ ফ্রি পাওয়ার হিড়িক

ঢাকা: দেশব্যাপী চলছে বাংলাদেশি সুপারব্র্যান্ড ওয়ালটনের ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-১১। এর আওতায় ওয়ালটন ফ্রিজ, টিভি, এসি, ওয়াশিং মেশিন, ফ্যান, গ্যাস স্টোভ ও রাইস কুকার ক্রেতাদের জন্য রয়েছে আকর্ষণীয় সুবিধা।

ক্যাম্পেইনে ওয়ালটনের এসি কিনে একটি করে ডিপ ফ্রিজ বা ফ্রিজার পেয়েছেন দেড় শতাধিক ক্রেতা।

কোরবানির ঈদ উপলক্ষে চলছে ওয়ালটনের ‘মেগা ঈদ ফেস্টিভ্যাল’।  

প্রতিষ্ঠানটির ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-১১ এর আওতায় মেগা ঈদ ফেস্টিভ্যালে ওয়ালটন ফ্রিজ, টিভি, এসি, ওয়াশিং মেশিন, ফ্যান, গ্যাস স্টোভ ও রাইস কুকার ক্রেতাদের জন্য রয়েছে দেশের ইলেকট্রনিক্স বাজারের সবচেয়ে বড় সুযোগ। যেমন ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করে মিলিয়নিয়ার হওয়ার সুযোগ রয়েছে। এছাড়াও পণ্যভেদে আছে ফ্রি ফ্রিজ, এসি, ওয়াশিং মেশিন, কোটি কোটি টাকার নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচারসহ অসংখ্য সুবিধা।

ওয়ালটন এসি কিনে ডিপ ফ্রিজ পাওয়া সৌভাগ্যবান ক্রেতাদের মধ্যে রয়েছেন-রাজধানীর উত্তরা কামারপাড়ার আব্দুল্লাহ ইবনে মান্নান, সোনাগাজীর পূর্ব মির্জাপুরের মো. মোশারফ, জামালপুর সরিষাবাড়ীর উচ্চগ্রামের তোফাজ্জল হোসেন, হবিগঞ্জের সাটিয়াজুরীর আ.ফ.ম আসাদ উল্লাহ, ঢাকা দক্ষিণ বনশ্রীর আবুল হোসেন, তুরাগ এলাকার ভাটুলিয়ার সিফাত ইসলাম ও রংপুর পীরগঞ্জের জাহাঙ্গীর আলম।

ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এসি কিনে একটি করে ডিপ ফ্রিজ পেয়ে মহাখুশি তাদের পরিবার। সৌদি প্রবাসী ক্রেতা মোশারফ হোসেন জানান, সোনাগাজীর ডাকবাংলা এলাকায় ওয়ালটন ডিস্ট্রিবিউটর শোরুম মেসার্স মির্জাপুর এন্টারপ্রাইজ ও ফাগুন ইলেকট্রনিক্স থেকে বাসায় ব্যবহারের জন্য ৩৯ হাজার ৯০০ টাকা দিয়ে ১ টনের একটি ওয়ালটন এসি কিনেছিলেন। কেনার পর বিক্রেতা ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করে দিলে ফ্রি ডিপ ফ্রিজ পাওয়ার মেসেজ যায় তার মোবাইলে। ওয়ালটনের একটি ফ্রিজ ব্যবহার করছেন ৮ বছর ধরে। ফ্রিজটি ভালো সার্ভিস দেওয়ায় ওয়ালটন থেকেই এসি কেনার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। ঈদের আগে এসি কিনে ডিপ ফ্রিজ পাওয়ায় আনন্দিত মোশারফের পরিবার। সম্প্রতি সোনাগাজী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শাখাওয়াতুল হক বিটু তার হাতে ডিপ ফ্রিজটি তুলে দেন।

সম্প্রতি রংপুরের স্টেশন রোডের ওয়ালটন প্লাজা থেকে ১ দশমিক ৫ টনের এসি কিনে ট্রান্সপোর্ট ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম ডিপ ফ্রিজ ফ্রি পেয়েছেন। ৬০ হাজার ৭২০ টাকা দিয়ে ফ্রিজটি কেনার পর ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করলে ওই সুবিধা পান তিনি।  জানালেন, ওয়ালটনের পণ্য কেনায় এসব অফার সম্পর্কে তিনি আগে থেকে জানতেন না। ওয়ালটন পণ্য দামে সাশ্রয়ী আর মানে ভালো তাই তিনি ওয়ালটন থেকেই এসি কেনেন।  

ওয়ালটনকে ধন্যবাদ জানান এই ক্রেতা। এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে ফ্রি পাওয়া ডিপ ফ্রিজটি তার হাতে তুলে দেওয়া হয়।  

জানা গেছে, স্পিট এসির পাশাপাশি স্কুল-কলেজ, মসজিদ, মাদ্রাসা, হাসপাতাল, হোটেল, রেস্টুরেন্ট, কনফারেন্স হলের মতো মাঝারি স্থাপনার জন্য ৪ ও ৫ টনের ক্যাসেট এবং সিলিং টাইপ এসি উৎপাদন ও বাজারজাত করছে ওয়ালটন। শিগগিরই ক্যাসেট এবং সিলিং টাইপ টাইপের ২ ও ৩ টনের এসি উৎপাদন শুরু করা হবে। এছাড়া বড় স্থাপনার জন্য ওয়ালটনের রয়েছে ভেরিয়্যাবল রেফ্রিজারেন্ট ফ্লো বা ভিআরএফ এবং চিলার এসি।

এসিতে এক বছরের রিপ্লেসমেন্টের পাশাপাশি ইনভার্টার এসির কম্প্রেসরে ১০ বছর পর্যন্ত গ্যারান্টি সুবিধা দিচ্ছে ওয়ালটন। আছে জিরো ইন্টারেস্টে ১ বছরের ইএমআই এবং ৩৬ মাস পর্যন্ত সহজ কিস্তি সুবিধা।

দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের আওতায় সারা দেশে ওয়ালটনের রয়েছে ৭৬টি সার্ভিস সেন্টার। পাশাপাশি প্রায় ৩০০ সার্ভিস পার্টনারের মাধ্যমে দেশব্যাপী এসির গ্রাহকদের সেবা দিচ্ছে ওয়ালটন।

এদিকে ওয়ালটনের দক্ষ ও অভিজ্ঞ প্রকৌশলী এবং টেকনিশিয়ানরা প্রতি ১০০ দিন পর পর এসি ক্রেতাদের ফ্রি সার্ভিস দিচ্ছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২৩০২ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০২১
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa