ঢাকা, শনিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান পিপলস লিজিংয়ের আমানতকারীরা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২১ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৯, ২০২০
প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান পিপলস লিজিংয়ের আমানতকারীরা মানববন্ধন

ঢাকা: টাকাফেরত পেতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন অবসায়ন হওয়া আর্থিক প্রতিষ্ঠান পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেসের  আমানতকারীরা।

সোমবার (১৯ অক্টোবর) রাজধানীর সিটি সেন্টারের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে তারা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান।

ব্যক্তি আমানতকারীদের পক্ষে আয়োজিত মানববন্ধনে লিখিত বক্তব্য দেন আমানতকারীদের উদ্যোগে গঠিত কাউন্সিলের কনভেনর ও প্রধান সমন্বয়ক আতিকুর রহমান এবং জেনারেল সেক্রেটারি রানা ঘোষ।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন, আমরা বাঁচতে চাই। আমাদের বাঁচানোর পথ সুগম করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সাহায্য কামনা করছি। আমাদের আশা প্রধানমন্ত্রীর নেওয়া যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত আমাদের মতো অসহায় আমানতকারীদের জীবন বাঁচাবে। দেশের ব্যাংক ও আর্থিকখাতে শৃঙ্খলা ফিরে আসবে।

এ সময় তিনটি দাবি তুলে ধরেন তারা। দাবিগুলো হলো- পিপলস লিজিংকে এখনই অবসায়ন না করে ব্যক্তি ও ক্ষুদ্র আমানতকারীদের আমানত দ্রুত ফিরিয়ে দিতে সরকার যেভাবে ফারমার্স ব্যাংককে অবসায়ন না করে পদ্মা ব্যাংক, বিসিআই ব্যাংককে অবসায়ন না করে ইস্টার্ন ব্যাংক নামে পুনর্গঠন করেছেন। ঠিক একইভাবে পিপলস লিজিংকে পুনর্গঠন করে নতুন নামে চালু করা হোক। ফলে ক্ষুদ্র ও নিরীহ আমানতকারীরা তাদের আমানত ফেরত পাবে।

এছাড়া পিপলস লিজিংয়ের সঙ্গে জড়িত দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা ও বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে হবে। একইসঙ্গে তাদের সম্পত্তি ও ব্যাংক হিসাব জব্দ করা হোক।

বাংলাদেশ সময়: ২০২০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৯, ২০২০
এসই/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa