ঢাকা, বুধবার, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

অর্থনীতি-ব্যবসা

করোনায় ফেরা প্রবাসী নারী শ্রমিকদের জন্য কর্মসূচি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪৫৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৭, ২০২০
করোনায় ফেরা প্রবাসী নারী শ্রমিকদের জন্য কর্মসূচি

ঢাকা: করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে বিদেশ ফেরত নারী শ্রমিকদেরকে স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রী এবং খাদ্য সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে বিশেষ কর্মসূচির উদ্বোধন করেছে ইউএন উইমেন বাংলাদেশ। কোভিড-১৯ এর ঝুঁকি ও চ্যালেঞ্জ থেকে বিদেশ ফেরত নারী শ্রমিকদেরকে রক্ষা করার লক্ষ্যে চালুকৃত এই প্রকল্পের আওতায় তাদেরকে জরুরি খাদ্য সহায়তার পাশাপাশি ব্যক্তিগত স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রী প্রদান করা হবে।

রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ইউএন উইমেন জানায়, জাপান সরকার এবং ইউনিলিভার বাংলাদেশের সহায়তায় চালু করা এই প্রকল্পটি প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদিশক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার এবং সংশ্লিষ্ট অংশীদারগণের সহযোগিতায় বাস্তবায়ন করা হবে।

বাংলাদেশ নারী শ্রমিক কেন্দ্র এবং বাদাবন সংঘ নামক দু’টি নারী অধিকার সংস্থা ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, ঢাকা শহর, মানিকগঞ্জ, কেরানিগঞ্জ, নরসিংদী, রাজবাড়ী, যশোর, বাগেরহাট, সিলেট, হবিগঞ্জ, পটুয়াখালী ও জামালপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে।

কোভিড- ১৯ এর কারণে বিভিন্ন দেশে কর্মরত প্রবাসী নারী শ্রমিকরা চাকরি হারিয়ে এখন বড় ঝুঁকিতে রয়েছেন। এটি তাদেরকে খাদ্য ও পুষ্টির অভাবসহ নানান স্বাস্থ্য ঝুঁকির পাশাপাশি সামাজিক ভয় এবং গৃহে লিঙ্গভিত্তিক সহিংসতার দিকে ঠেলে দিয়েছে। এমতাবস্থায় কাজের বিনিময়ে নগদ অর্থ (সিএফডবিøউ) প্রদানের পাশাপাশি উপার্জনমুখী নানান কর্মকাণ্ড ও কমিউনিটি কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করা এবং কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সচেতনামূলক বার্তা প্রচারের মাধমে তাদেরকে কোভিড-১৯ প্রতিরোধ কার্যক্রমের কেন্দ্রে রাখতে এই কর্মসূচি হাতে নিয়েছে ইউএন উইমেন।

প্রকল্পটির আওতায় ঢাকা, কেরানিগঞ্জ এবং মানিকগঞ্জের বিদেশ ফেরত ৪০০ জন নারী শ্রমিকের প্রত্যেকে ডিগনিটি পাকেজ পাবেন, যেখানে দুটি করে মাস্ক ছাড়াও হাত ধোয়ার সাবান, গুঁড়া সাবান এবং প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী থাকবে।  

এছাড়া দেশের তিনটি বিভাগের ১০টি জেলার বিদেশ ফেরত প্রায় ১০ হাজার নারী শ্রমিককে দু’টি করে মাস্ক, হাত ধোয়া সাবান, গুঁড়া সাবান, শ্যাম্পু, টুথপেস্টসহ দরকারি স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী দেওয়া হবে। মানিকগঞ্জ জেলার ৩০ জন প্রত্যাগত নারী শ্রমিককে মাস্ক তৈরির প্রশিক্ষণসহ সেলাই মেশিন (৬) দেওয়া হবে, যাতে তারা নিজ নিজ এলাকার মানুষের ব্যবহারের জন্য মাস্ক তৈরির মাধ্যমে জীবিকা উপার্জন করতে পারেন। ১০০ জনকে কাজের বিনিময়ে নগদ অর্থ, প্রদান করা হবে। তাদের কাজ হবে কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধের বিষয়ে নিজ নিজ জনগোষ্ঠীর মানুষকে সচেতন করা এবং নিজ এলাকার বিদেশ ফেরত নারী শ্রমিকদের সহায়তা করা। এই প্রকল্পটির ফলে প্রায় ৫০ হাজার মানুষ (বিদেশ ফেরত নারী শ্রমিকদের পরিবারের সদস্যসহ) উপকৃত হবেন।

এই কর্মসূচির উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুস সালেহীন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএমইটি’র মহাপরিচালক মো. শামসুল আলম; ইউএন উইমেন বাংলাদেশ এর অফিসার ইনচার্জ দিলরুবা হায়দার এবং ইউনিলিভার বাংলাদেশ’র কোম্পানি সেক্রেটারি এবং লিগ্যাল ডিরেক্টর, রাশেদুল কাইয়ুম।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৬, ২০২০
এসই/এমএইচএম/এমএমআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa