ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭, ১১ আগস্ট ২০২০, ২০ জিলহজ ১৪৪১

ব্যাংকিং

‘নগদ’ বিশ্বের দ্রুত বর্ধনশীল ডিজিটাল আর্থিক সেবা: এপিপিইউ

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭৪৫ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০২০
‘নগদ’ বিশ্বের দ্রুত বর্ধনশীল ডিজিটাল আর্থিক সেবা: এপিপিইউ

ঢাকা: বাংলাদেশ ডাক বিভাগের আর্থিক লেনদেন সেবা ‘নগদ’কে বিশ্বের দ্রুত বর্ধনশীল ডিজিটাল আর্থিক সেবা হিসেবে অভিহিত করেছে এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের বিভিন্ন দেশের ডাক বিভাগগুলোর সংগঠন এশিয়া প্যাসিফিক পোস্টাল ইউনিয়ন (এপিপিইউ)। 

গত বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) পোস্টাল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ওয়ার্কিং গ্রুপের এক ভার্চ্যুয়াল অনুষ্ঠানে ‘নগদ’র বিভিন্ন সেবার কথা তুলে ধরে এর ভূয়সী প্রশংসা করে এপিপিইউর শীর্ষ নেতারা।  

এদিকে অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া দেশগুলোর মধ্যে অন্তত ৯টি দেশ ‘নগদ’ বিজনেস মডেল রেপ্লিকেট করার আগ্রহের কথা জানিয়েছে।

‘নগদ’ বিজনেস মডেল নিয়ে আগ্রহ প্রকাশ করা দেশগুলোর মধ্যে অস্ট্রেলিয়া, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, পাকিস্তান, ভারত, জাপান, ভিয়েতনাম, ইরান ও সলোমন আইল্যান্ডের প্রতিনিধিরা জানান, ‘নগদ’-এর মতো সেবা চালু করতে পারলে তাদের দেশের পোস্টাল সেবা আবারও জেগে উঠতে পারে।  

এপিপিইউ’র ওই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সুধাংশু শেখর ভদ্র ও ‘নগদ’-এর নির্বাহী পরিচালক মো. সাফায়েত আলম অংশ নেন।

বাংলাদেশ ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সুধাংশু শেখর ভদ্র বর্তমানে এপিপিইউ’র পোস্টাল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ওয়ার্কিং গ্রুপের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। অনুষ্ঠানে এপিপিইউ’র সেক্রেটারি জেনারেল লিন হোংলিয়াং এবং ৩২টি সদস্য দেশের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।

এদিন ‘নগদ’-এর সেবার প্রসার এবং পাবলিক প্রাইভেট মডেলের মাধ্যমে ডিজিটাল আর্থিক সেবার ভূয়সী প্রশংসা করে এপিপিইউ’র সেক্রেটারি জেনারেল লিন হোংলিয়াং বলেন, নিঃসন্দেহে ‘নগদ’ এখন এপিপিইউ সদস্য দেশগুলোর ডাক বিভাগের মধ্যে রোল মডেল হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। এমন সেবা দেশগুলোর ডাক বিভাগকে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার জন্য শক্তি যোগাতে পারে।  

নগদ প্রসঙ্গে এপিপিইউ সদস্য দেশগুলোর প্রশংসা ও তাদের দেশেও একই ধরনের সেবা চালু করার আগ্রহ প্রকাশ করা প্রসঙ্গে সুধাংশু শেখর ভদ্র বলেন, এটি সত্যিই আমাদের জন্য আনন্দের একটি উপলক্ষ ছিল যে, এপিপিইউ’র সদস্য দেশগুলো ‘নগদ’-এর অনেক প্রশংসা করেছেন। তারা আমাদের চালু করা মডেলে নিজেদের দেশেও সেবা চালু করার আগ্রহের কথা জানিয়েছেন।

‘দেশের ভেতরে এবং আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে ‘নগদ’ আমাদের জন্য খুবই গৌরবজনক একটি অবস্থান তুলে ধরছে। আমি এ জন্য ‘নগদ’ ম্যানেজমেন্টকে ধন্যবাদ জানাই। পাশাপাশি প্রত্যাশা করি এমন একদিন আসবে, যে দিন ‘নগদ’ এবং বাংলাদেশের নাম ডিজিটাল ফাইন্যান্সিয়াল সেবার পরিমণ্ডলে উদাহরণ হিসেবে ব্যবহৃত হবে। ’ 

উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে ‘নগদ’-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর আহমেদ মিশুক বলেন, এমন প্রশংসা অবশ্যই আমাদের সেবার মান এবং পরিমণ্ডলকে আরো বিস্তৃত করতে উৎসাহিত করবে। আমাদের লক্ষ্য যতটা সম্ভব দেশের মানুষের সেবা করা এবং তাদের আর্থিক সেবার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা। নগদ-এর মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আমাদের প্রিয় বাংলাদেশের পতাকা তুলে ধরতে পেরে আমরা অত্যন্ত গর্বিত।  

একের পর এক উদ্ভাবনী সেবা চালু করার মাধ্যমে এরই মধ্যে দেশের দ্বিতীয় মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে ‘নগদ’। বর্তমানে দেশে ১৫টি প্রতিষ্ঠান মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সেবা দিয়ে যাচ্ছে। জনগণের কাছে সরকারি সহায়তা বিতরণের জন্যও ‘নগদ’ এখন সরকারের প্রথম পছন্দ হয়ে উঠেছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৭৪৪ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০২০ 
এইচজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa