ঢাকা, বুধবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ সফর ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

২২ দিন পর সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে পাথর আমদানি শুরু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৫১৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮
২২ দিন পর সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে পাথর আমদানি শুরু

চাঁপাইনবাবগঞ্জ: ২২ দিন পর ভারতীয় ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশি আমদানিকারকদের ৬ দফা দাবি মেনে নেওয়ায় সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে পাথর আমদানি শুরু হয়েছে।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে এ আমদানি শুরু হয়। ফলে  বন্দরে বেড়েছে কর্মচাঞ্চল্য।

এর আগে গত ২১ জানুয়ারি থেকে ভারতের রপ্তানিকারকরা দফায় দফায় পাথরের দাম বৃদ্ধি, ওজনে কম দেওয়া, মানসম্মত পাথর না দিয়ে ধুলা মেশানো নিম্নমানের পাথর সরবরাহ, জিএসটির নামে রশিদ ছাড়াই প্রতি টন পাথরে অতিরিক্ত ২ রুপি করে চাঁদা আদায়ের প্রতিবাদে বাংলাদেশি পাথর আমদানি ও রপ্তানিকারকরা আমদানি বন্ধ করে দেয়।

এ ব্যাপারে সোনামসজিদ বন্দর আমদানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো. তৌফিকুর রহমান বাবু সোমবার থেকে পাথর আমদানির বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, রোববার বিকেলে উভয় দেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে ফলপ্রসু আলোচনা হয়। পরে ভারতের মোহদীপুর রপ্তানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের সহ সভাপতি মানবেন্দ্র সরকার ও বাংলাদেশের সোনামসজিদ আমদানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদকের যৌথ সমঝোতা স্বাক্ষরের পর সোমবার সকাল থেকে পাথর আমদানির সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা।
 
প্রসঙ্গত এর আগে ২০১৬ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে একই কারণে ৫ দিন পাথর আমদানি বন্ধ রাখে দেশীয় আমদানিকারকরা। রফতানিকারকরা পাথর আমদানির ক্ষেত্রে অগ্রিম রাজস্ব প্রদান বহাল, অহেতুকভাবে দাম বাড়ানো, কথিত জিএসটি বাবদ অযাচিত ২ রূপি কমিশন আদায় (পরে ২ রূপির স্থলে ৪ রূপি করা হয় ), পাথরের ওজন সিএফটি’র পরিবর্তে মেট্রিক টনে প্রদান, পাথরে আবর্জনা মিশিয়ে ওজন বাড়ানো ও দফায় দফায় দাম বাড়ানোসহ কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি ও জিম্মি করে বাংলাদেশি আমদানিকারকদের কাছ থেকে অধিক মুনাফা আদায় করায় সে সময় পাথর আমদানি বন্ধ করে দেয় আমদানিকারকরা।

তবে এর ৫দিন পর থেকে মৌখিকভাবে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের দাবি ভারতীয় রপ্তানিকারকরা মেনে নেওয়ায় আবার পাথর রপ্তানি শুরু হলেও ঘটনার এক বছরের মাথায় আবারো প্রায় একই কারণে চলতি বছরের ২১ জানুয়ারি থেকে পাথর আমদানি বন্ধ হয়ে যায়। এবার লিখিত সমঝোতা হওয়ায় এ নিয়ে আর অচলবস্থা সৃষ্টি হবে না বলে দাবি সংশ্লিষ্টদের।

বাংলাদেশ সময়: ১১০৭ ঘণ্টা, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa