ঢাকা, শুক্রবার, ৬ কার্তিক ১৪২৮, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

বান্দরবানে পুলিশি বাধায় বিএনপির মিছিল পণ্ড, আটক ৬

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৩৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০১৪
বান্দরবানে পুলিশি বাধায় বিএনপির মিছিল পণ্ড, আটক ৬

বান্দরবান: বান্দরবানে বিএনপির মিছিলে লাঠিচার্জ করে বিএনপির কালো পতাকা মিছিল পণ্ড করে দিয়েছে পুলিশ। এ সময় পুলিশের সঙ্গে নেতাকর্মীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়।

পরে পুলিশ ছয়জনকে আটক করে।

প্রহসনের নির্বাচন বাতিল ও দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বিএনপি মিছিল বের করলে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিকেলে বান্দরবান বাজার এলাকায় জেলা বিএনপির কার্যালয় হতে বিএনপির কেন্দ্রীয় উপজাতি বিষয়ক সম্পাদক মাম্যচিংয়ের নেতৃত্বে মিছিল শুরু হয়। মিছিলটি শহরের ট্রাফিক মোড়ে আসলে পুলিশ তাদের বাধা দেয় এবং লাঠিচার্জ করে। এক পর্যায়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয় এবং পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে নেতাকর্মীরা।

এ সময় স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মো. জাহাঙ্গীর আলম, যুবদলের সভাপতি মশিউর রহমান মিটন, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক নেজাম উদ্দীন চৌধুরী, স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা মো. বেলাল, আবদুর রশীদ, মহিলা নেত্রী সাইচিং মার্মাসহ অন্তত ১৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়।

পরে বাজারের পৌর শপিং কমপ্লেক্স চত্বর এবং জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে পৃথক দুটি সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির সভাপতি সাচিং প্রু জেরী, বিএনপির কেন্দ্রীয় উপজাতি বিষয়ক সম্পাদক মাম্যাচিং, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান, জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যাপক মো. ওসমান গণি, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মো. মুজিবুর রশীদ, মহিলা দলের সভাপতি কাজী নিরুতাজ বেগম নিলু, জেলা যুবদলের সভাপতি মশিউর রহমান মিটন, সাধারণ সম্পাদক নেজাম উদ্দীন চৌধুরী, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মো. জাহাঙ্গীর আলম, মহিলা দলের যুগ্ম আহ্বায়ক উম্মে কুলসুম লিনা, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সাবিকুর রহমান জুয়েল, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হায়দার বাবলু, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লুৎফুর রহমান প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে পুনরায় মিছিলের চেষ্টা করা হলে ঘটনাস্থল থেকে ছয় নেতাকর্মীকে আটক করে পুলিশ।
তারা হলেন, স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা মো. রাসেল (২৪), মো. হেলাল উদ্দীন (১৯), ছাত্রদল কর্মী মো. আরিফ উদ্দীন, মো. মোরশেদ (১৫), নেজাম উদ্দীন (২২) এবং যুবদল কর্মী মো. দেলোয়ার (১৮)।

জেলা যুবদলের সভাপতি মশিউর রহমান মিটন বাংলানিউজকে জানান, পুলিশ অন্যায়ভাবে তাদের সমাবেশে বাধ‍া দিয়েছে ও দলীয় নেতাকর্মীদের আটক করেছে। তিনি আটকদের দ্রুত মুক্তির দাবি করেন।

এ বিষয়ে বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন জানান, সমাবেশ শেষে নেতাকর্মীরা নাশকতা সৃষ্টি করতে পারে সন্দেহে তাদের আটক করা হয়েছে। পুলিশ হেফাজতে এদের জিজ্ঞাসাবাদ  করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa