ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৯ জিলহজ ১৪৪২

ক্রিকেট

ফিফটি করেই আউট মোসাদ্দেক

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫২ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০২১
ফিফটি করেই আউট মোসাদ্দেক ছবি: শোয়েব মিথুন

দলের বিপর্যয়ের মুখে ব্যাট হাতে হাল ধরার ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন মোসাদ্দেক হোসেন। দেখেশুনে খেলে তুলে নিয়েছিলেন ফিফটিও।

কিন্তু এর ঠিক পরেই লঙ্কান স্পিনার রমেশ মেন্ডিসের বলে বিনুরা ফার্নান্দোর হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নিয়েছেন ডানহাতি মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান।  

প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে মোসাদ্দেকের ব্যাট থেকে আসে ৭২ বলে ৫১ রান। ইনিংসটি তিনি ৩টি চার ও ১ ছক্কায় সাজিয়েছেন। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে ৫০ বলে ৪০ রানের জুটিও গড়েছিলেন তিনি।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৩৪ ওভার শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৩৭ রান।

লক্ষ্য তাড়ায় নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় বাংলাদেশ। লঙ্কান পেসার চামিরার করা ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই স্লিপে থাকা কুশল মেন্ডিসের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নেন লিটন দাসের বদলে সুযোগ পাওয়া নাঈম (১)। এই প্রথম ওয়ানডেতে ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারলেন না তিনি। এর আগে গত বছর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অভিষেক হলেও ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি তিনি।

এরপর চামিরার পরের ওভারে শর্ট বলে স্কয়ার লেগে ক্যাচ তুলে দেন সাকিব (৪)। ক্যাচটি সহজেই লুফে নেন রমেশ মেন্ডিস। এর আগে সিরিজের বাকি দুই ম্যাচে সাকিবের ব্যাট থেকে এসেছে যথাক্রমে ১৫ ও ০ রান। এরপর চামিরার বলে তামিম ইকবাল উইকেটরক্ষক নিরোশান ডিকভেলার হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নিয়েছেন। যদিও রিভিও নিয়েছিলেন বাংলাদেশের ওয়ানডে দলপতি। কিন্তু রিপ্লেতে দেখা যায়, বল তার ব্যাট ছুঁয়ে ডিকভেলার গ্লাভসে জমা হয়। ফলে শেষ হয় তামিমের ২৯ বলে ১৭ রানের ইনিংস।

এদিকে টানা দুই ম্যাচ প্রায় একাই ব্যাট হাতে দলকে টেনে নিয়ে গেছেন মুশফিকুর রহিম। তৃতীয় ম্যাচেও দলের বিপর্যয়ে হাল ধরেছিলেন। কিন্তু এবার আর পারলেন না অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান। লঙ্কান স্পিনার রমেশ মেন্ডিসের বলে তুলে মারতে গিয়ে লং-অনে থাকা ধনঞ্জয়া ডি সিলভার হাতে ক্যাচ তুলে দিয়েছেন মুশফিক। সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে যথাক্রমে ৮৪ ও ১২৫ রান করা মুশি আজ বিদায় নিয়েছেন ৫৪ বলে ২৮ রানের ইনিংস খেলে। যাওয়ার আগে মোসাদ্দেকের সঙ্গে ৫৬ রানের জুটি গড়েন তিনি।

এর আগে মিরপুরের শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে বাংলাদেশকে ফিল্ডিংয়ে পাঠান শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক কুশল পেরেরা। শুরুতে ব্যাট করতে নেমে কুশলের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি ও ধনঞ্জয়া ডি সিলভার ফিফটিতে ভর করে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৮৬ রানের লড়াকু সংগ্রহ পায় শ্রীলঙ্কা। বল হাতে বাংলাদেশের তাসকিন আহমেদ নেন ৪ উইকেট। ১ উইকেট শরিফুলের। বাকি উইকেট আসে রান আউট থেকে, যেখানে মূল ভূমিকা শরিফুলের।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫১ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০২১
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa