ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বাজেট

পরপর দু’অর্থবছর রাজস্ব আহরণে ‘সারপ্লাস’

রহমত উল্যাহ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৪৮ ঘণ্টা, জুন ২৯, ২০১৬
পরপর দু’অর্থবছর রাজস্ব আহরণে ‘সারপ্লাস’

ঢাকা: পরপর দুই অর্থবছর লক্ষ্যমাত্রার অতিরিক্ত (সারপ্লাস) রাজস্ব আহরণের রেকর্ড গড়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। অসম্ভবকে সম্ভব করে বিদায়ী অর্থবছরের সংশোধিত রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা ১ লাখ ৫০ হাজার টাকার বিপরীতে আদায় হয়েছে ১ লাখ ৫৪ হাজার ৭৮৩ কোটি ৯৩ লাখ টাকা।


 
অতিরিক্ত রাজস্ব আদায় হয়েছে ৪ হাজার ৭৮৩ কোটি ৯৩ লাখ টাকা। এবছর রাজস্ব প্রবৃদ্ধি হার ১৪.০৬ শতাংশ। যা গত অর্থবছরের তুলনায় দশমিক ৯০ শতাংশ বেশি। যদিও ২০১৬-১৭ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে অর্থমন্ত্রী ঘোষণা দিয়ে বলেছেন,‘রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা ১ লাখ ৬০ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে। ’
 
এনবিআর বলছে, ভ্যাট খাতে রাজস্ব যোগ হতে ১৫ থেকে ২০ জুলাই লেগে যায়। সে রাজস্ব যোগ হলে অতিরিক্ত রাজস্ব প্রায় ১৫ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে।
 
বিদায়ী অর্থবছরে বেশি রাজস্ব এসেছে ভ্যাট খাত থেকে। ভ্যাটে ৫৪ হাজার ৬৪  কোটি টাকা লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে আদায় হয়েছে ৫৫ হাজার ৬৮৪ কোটি ৪১ লাখ টাকা। যেখানে গত অর্থবছরে আদায় হয়েছে ৪৯ হাজার ১৩ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। ভ্যাট খাতে রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের হার ১০২.৯৯ শতাংশ আর প্রবৃদ্ধি ১৩.৬১ শতাংশ।
 
দ্বিতীয় হিসেবে, আয়কর খাতে ৫৩ হাজার ৪৩৬ কোটি টাকার বিপরীতে আদায় হয়েছে ৫৪ হাজার ২৪৪ কোটি ৬৭ লাখ টাকা। যেখানে গত অর্থবছর আদায় হয়েছে ৪৮ হাজার ৩৫৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা। আয়কর খাতে অর্জনের হার ১০১.৫৮ শতাংশ আর প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে ১২.১৮ শতাংশ।
 
শুল্কে ৪২ হাজার ৫০০ কোটি টাকার বিপরীতে আদায় হয়েছে ৪৪ হাজার ৮৫৪ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। যেখানে গত অর্থবছর আদায় হয়েছে ৩৮ হাজার ৩৩৩ কোটি ৩৭। শুল্ক অর্জনের হার ১০৫.৫৪ শতাংশ ও প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে ১৭.০১ শতাংশ। বিদায়ী অর্থবছরে রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের হার ১০৩.১৯ শতাংশ ও প্রবৃদ্ধি ১৪.০৬ শতাংশ।
 
অপরদিকে; তিন অর্থবছর পর ২০১৪-১৫ অর্থবছর লক্ষ্যমাত্রা ১ লাখ ৩৫ হাজার ৭০৯ কোটি টাকার বিপরীতে অতিরিক্ত আদায় হয় ১৩ হাজার ৫০২৮ কোটি টাকা।
 
বিদায়ী অর্থবছরে পেট্রোবাংলা থেকে রাজস্ব (ভ্যাট) হিসেবে ১৩ হাজার ২৭৮ কোটি টাকার রহস্য উৎঘাটন করলেও তা আগামী অর্থবছর পাওয়া যাবে। ইতোমধ্যে মন্ত্রিসভা এটি অনুমোদন দিয়েছে। সংসদে আগামী অর্থবছরের বাজেটে তা অনুমোদনের পর অর্থমন্ত্রণালয়ের জুলাই মাসে বুক অ্যাডজাস্টমেন্ট হবে।
 
‘অসম্ভবকে সম্ভব’ করে রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করায় এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান সহকর্মী রাজস্ব কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, স্বাধীনতার পর এনবিআর লক্ষ্যমাত্রার রেকর্ড পরিমাণ রাজস্ব আহরণ করেছে। এখন পর্যন্ত প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকার অতিরিক্ত রাজস্ব আহরণ হয়েছে।
 
ভ্যাটের হিসেব আসতে জুলাই মাসের ১০ থেকে ১৫ তারিখে হয়ে যাবে। সেখান থেকে কিছু রাজস্ব এলে অতিরিক্ত প্রায় ১৫ হাজার টাকা রাজস্ব হবে। ‘লক্ষ্যমাত্রা’ নিয়ে বিভিন্ন মহলের সমালোচনা, সন্দেহ আর হতাশার মধ্যেও রেকর্ড গড়ে দ্বিতীয়বারের মতো আমরা লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পেরেছি বলে জানান তিনি।
 
লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের পেছনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা ও অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সক্রিয় তত্ত্বাবধানের জন্য ধন্যবাদ জানান চেয়ারম্যান। একই সাথে করদাতা, স্টেকহোল্ডার, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, অধিদফতর ও রাজস্ব সংশ্লিষ্ট সকলের অবদানের কথা কৃতজ্ঞতার সাথে স্বীকার করেন তিনি।
 
বর্তমান এনবিআরের গতিশীলতা অনুযায়ী, আগামী অর্থবছরের বাজেটের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সম্ভব হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৩২২ ঘণ্টা, জুন ২৯, ২০১৬
আরইউ/জেডএম
 

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa