ঢাকা, বুধবার, ২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ আগস্ট ২০২২, ১৮ মহররম ১৪৪৪

বাজেট

বাজেট বরাদ্দে হতাশ প্রতিবন্ধীরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪১৩ ঘণ্টা, জুন ৭, ২০১৫
বাজেট বরাদ্দে হতাশ প্রতিবন্ধীরা ছবি: দীপু মালাকার/বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: প্রতিবন্ধীদের ৫০টি বাজেট প্রস্তাবনার মধ্যে ৩০টি প্রস্তাবনাই আলোচনায় না আসায় বাজেট বরাদ্দ নিয়ে হতাশ হয়েছেন প্রতিবন্ধীরা। জাতীয় প্রতিবন্ধী ফোরামের পরিচালক ডা. নাফিসুর রহমান এ মত ব্যক্ত করেছেন।



রোববার (০৭ জুন) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী প্রতিবন্ধীদের মানবসম্পদ বলে ঘোষণা দিলেও বাজেট প্রস্তাবনায় তারা করুণার পাত্র হিসেবেই রয়ে গেছেন।

ডা. নাফিসুর রহমান বলেন, বাজেটের আগে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে ১২টি মন্ত্রণালয়ে প্রতিবন্ধীদের জন্য আলাদা বাজেট বরাদ্দের দাবি জানিয়েছিলাম। কিন্তু প্রস্তাবিত বাজেটে প্রতিবন্ধীদের জন্য শুধু সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ে বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী ২০১৩ সালে ১২টি মন্ত্রণালয়কে প্রতিবন্ধীদের সেবার জন্য বরাদ্দ দেওয়ার কথা বলেছেন। কিন্তু এই ১২টি মন্ত্রণালয় ঐ সময় থেকে বরাদ্দ পেয়ে আসলেও এখন পর্যন্ত সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয় ছাড়া অন্য কোনও মন্ত্রণালয় তাদের সেবায় এগিয়ে আসেনি।

ডা. নাফিসুর রহমান বলেন, সরকার দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করলেও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের ব্রেইল সংস্করণ পাঠ্যপুস্তক সরবরাহে এখনও কোনও উদ্যোগ নেয়নি।

এ সময় তিনি প্রতিবন্ধীদের উন্নয়নে সরকারের কাছে কয়েকটি দাবি তুলে ধরেন। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের জন্য বিদ্যমান কার্যবন্টন বিধির সংকট উত্তরণে ১১ মন্ত্রণালয় থেকে বরাদ্দ, প্রতিবন্ধী সুরক্ষা আইন বাস্তবায়নে অধিদফতর উন্নয়ন কার্যক্রম গ্রহণ, প্রতিবন্ধী শিশুদের শিক্ষা, প্রতিবন্ধীদের উন্নয়নে স্থানীয় সরকারের নানা কর্মসূচি এবং দারিদ্র দ‍ূরীকরণ।

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়- প্রতিবন্ধীদের জন্য স্বাস্থ্য, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা, সমাজকল্যাণ, যুব ও ক্রীড়া, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা, পরিকল্পনা এবং শ্রম, কর্মসংস্থান, মহিলা ও শিশু, সংস্কৃতি, পরিবার কল্যাণ, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন মন্ত্রণালয় এবং তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অধীন আলাদা বাজেট বরাদ্দের দাবি জানানো হয়েছিল। শুধু সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন বাজেট বরাদ্দ হওয়ায় ১১টি সেবাখাতে সহযোগিতা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন প্রতিবন্ধীরা।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনটির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মনসুরুজ্জামান খান, সমন্বয়ক মো. মোশারফ হোসেন, সহকারী সমন্বয়ক নাজমা আরা বেগম পপি প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১২ ঘণ্টা, জুন ৭, ২০১৫
এফবি/এসইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa