ঢাকা, রবিবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ মে ২০২২, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩

বইমেলা

মোড়ক উন্মোচন না হলেও প্রায় প্রতিটি স্টলেই নতুন বই

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৪৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২০
মোড়ক উন্মোচন না হলেও প্রায় প্রতিটি স্টলেই নতুন বই

গ্রন্থমেলা প্রাঙ্গণ থেকে: উৎসুক নয়ন মেলে হাজারখানেক মানুষ অপেক্ষায় ছিলেন আগে থেকেই। বইমেলার দ্বার উন্মোচন হতেই পুরো মেলাজুড়ে ছড়িয়ে পড়লো অসংখ্য বইপ্রেমিক। প্রাণের মেলা বইয়ের মেলা পরিণত হলো মানুষের মেলায়। স্টলে স্টলে গিয়ে পাঠক নেড়েচেড়ে দেখছেন বই। অনেকে খোঁজ করছেন তার প্রিয় লেখকটির বই এসেছে কিনা।

রোববার (২ ফেব্রুয়ারি) প্রথম দিন বলে বাংলা একাডেমির নজরুল মঞ্চে শুরু হয়নি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান। দ্বিতীয় দিন থেকে নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন, মেলামঞ্চে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান যথারীতি বিকেল চারটা থেকে শুরু হবে বলে জানা যায় বাংলা একাডেমি থেকে।

এদিন আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন না হলেও প্রায় প্রতিটি স্টলেই চলে এসেছে নতুন বই। এগুলোর মধ্যে আগামী প্রকাশনীর হাসনাত আবদুল হাই রচনাসমগ্র ৫ম ও ৬ষ্ঠ খণ্ড, মৌলি আজাদের কিশোর গল্পগ্রন্থ ‘বইয়ের পাতায় স্বপ্ন বলে’, অবসর প্রকাশনী থেকে হরিশংকর জলদাসের ‘গল্পের গল্প’, সালমান হক অনূদিত হারুকি মুরাকামির ‘কাফকা অন দ্য শোর’ অন্যতম।

...এছাড়া বেঙ্গল পাবলিকেশন্স এনেছে আনা ইসলামের ‘প্যারিসের কররেখা’, সমাজ রাষ্ট্র বিবর্তন (জ্ঞানতাপস আব্দুর রাজ্জাক গুণীজন বক্তৃতামালা ২০১৭-১৮), পিয়াস মজিদের ‘এক পৃথিবী বইয়ের বাড়ি’।

অন্যপ্রকাশ এনেছে বিশ্বজিৎ ঘোষের ‘লোকপুরাণ জনসমাজ ও কথাশিল্পী’, হক ফারুক আহমেদের কাব্যগ্রন্থ ‘মেঘদরিয়ার মাঝি’, ইত্যাদি গ্রন্থপ্রকাশ এনেছে হাসান আজিজুল হকের ‘আমার রবীন্দ্রযাপন’, সৈয়দ মনজুরুল ইসলামের ‘উপন্যাসত্রয়ী’ প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০২, ২০২০
এইচএমএস/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa