ঢাকা, রবিবার, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ০৬ রজব ১৪৪৪

বইমেলা

বইমেলায় মলাটবন্দি ‘গজারিয়ার গণহত্যা’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২০০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০১৮
বইমেলায় মলাটবন্দি ‘গজারিয়ার গণহত্যা’ ‘গজারিয়ার গণহত্যা’

ঢাকা: রাজধানীর পাশে মেঘনা পাড়ের উল্লেখযোগ্য জনপদ গজারিয়া। মহান মুক্তিযুদ্ধে ঢাকার পাশের এবং ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উল্লেখযোগ্য পয়েন্ট গজারিয়ায় মুক্তিবাহিনী ও পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর কাছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছিলো। যে কারণে বর্তমান মুন্সীগঞ্জ জেলার একটি উপজেলা এই গজারিয়ায় মুক্তিযোদ্ধারা তিনটি ক্যাম্প স্থাপন করেছিলেন।

এখানে ঘটেছে লোমহর্ষক নানা সম্মুখ যুদ্ধ। জলে-স্থলে এসব যুদ্ধের বেশির ভাগেই নাকানি-চুবানি খেয়েছে পাকিস্তানিরা।

ঘটেছে অনেক মুক্তিযোদ্ধার বীরত্বপূর্ণ আত্মহুতি দেওয়ার ঘটনাও। ঘটেছে লোমহর্ষক গণহত্যার ঘটানাও। গজারিয়ায় আছে একাধিক গণকবর।

একুশের বই মেলায় ‘গণহত্যা গজারিয়া: রক্ত মৃত্যু মুক্তি’ বইটি নিয়ে পাঠকদের সামনে হাজির হয়েছেন শেকড় সন্ধানী লেখক সাহাদাত পারভেজ। ১৭৬ পৃষ্ঠার এ বইটি প্রকাশ করেছে সাহিত্য প্রকাশ। প্রচ্ছদ এঁকেছেন মোস্তাফিজ কারিগর। বইটি পাওয়া যাচ্ছে অমর একুশে বইমেলায়, সাহিত্য প্রকাশের ২৫৩-২৫৬ নম্বর স্টলে। ঘরে বসে পেতে চাইলে রকমারি ডটকম কিংবা ১৬২৯৭ নম্বরে সরাসরি ফোন করতে পারেন। দাম ৩৭৫ টাকা।

১৯৭১ সালের ৯ মে মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় এক ভয়াবহ গণহত্যা সংঘটিত হয়। সাহাদাত পারভেজ পরম নিষ্ঠা, আন্তরিকতা আর মমত্ব নিয়ে উদ্ধার করেছেন সেই গণহত্যার অনুপুঙ্খ বিবরণ। সঠিকভাবে তুলে ধরেছেন প্রয়োজনীয় তথ্য, উপাত্ত, সাক্ষাৎকার, ছবি, দলিল, তালিকা, ঘটনাক্রম ও সময়ানুক্রম। বইটি পাঠকদের ফিরিয়ে নিয়ে যায় মুক্তিযুদ্ধের রক্তাক্ত দিনে। হত্যা, মৃত্যু ও বিভীষিকার ছবি আবারও জীবন্ত হয়ে ওঠে। বইটি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় পাক হানাদার বাহিনী ও এদেশীয় দোসরদের সহায়তায় সংঘটিত ভয়াবহ মানবতাবিরোধী অপরাধের নিখাঁদ দলিল হিসেবে সাক্ষী দিতে পারবে।

উল্লেখ্য, সাহাদাত পারভেজ একজন খ্যাতমান আলোকচিত্রী ও লেখক। তিনি দীর্ঘদিন ধরে নিজের শেকড় নিয়ে গবেষণা করছেন। দীর্ঘ দেড় যুগ মাঠপর্যায়ে গবেষণার পর গজারিয়ার ইতিহাস ও ঐতিহ্য বইটি গত বছর একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছিল।  

এর আগের বছর বের হয়েছিল নিজের স্কুল নিয়ে লেখা গবেষণাধর্মী বই ‘একটি বিদ্যালয় বৃত্তান্ত’। কোনো স্কুল নিয়ে এ ধরনের গবেষণা আমাদের দেশে আগে হয়েছে বলে জানা যায় না। তার প্রথম কবিতার বই ‘যে ছবি হৃদয়ে আঁকা’ প্রকাশিত হয়েছিল ১৯৯৫ সালে কলেজে পড়ার সময়। ‘শতবর্ষের পথিক’ তার উল্লেখযোগ্য ফটো অ্যালবাম।

শাহাদাত পারভেজ এমনিতে একজন আর্ন্তজাতিক খ্যাতিসম্পন্ন আলোকচিত্রি। দেশে-বিদেশে তিনি প্রায় সবগুলো বিখ্যাত ফটো কম্পিটিশনে পুরস্কৃত হয়েছেন। লেখালেখিতেও তিনি পরিশ্রমের চিহ্ণ রেখে চলেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০১৮
আরএম/এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa