ঢাকা, রবিবার, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ০৬ রজব ১৪৪৪

বইমেলা

তৃতীয় দিনে নতুন বই ১২০, মেলা এখনো অগোছালো

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৪১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৮
তৃতীয় দিনে নতুন বই ১২০, মেলা এখনো অগোছালো একুশে বইমেলার তৃতীয়দিন/ছবি: শাকিল

ঢাকা: অমর একুশে গ্রন্থমেলার তৃতীয় দিন শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) মোট নতুন ১২০টি নতুন বই প্রকাশিত হয়েছে। 

প্রকাশিত বইগুলোর মধ্যে গল্প ১১টি, উপন্যাস ১৯টি, প্রবন্ধ ১৩টি, কবিতা ২৬টি, গবেষণা গ্রন্থ ৩টি, ছড়া ৪টি, শিশুসাহিত্য ৬টি, জীবনী ৫টি, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক বই ৪টি, নাটক ১টি, বিজ্ঞান বিষয়ক বই ৭টি, ভ্রমণ কাহিনী ৪টি, চিকিৎসা/স্বাস্থ্য বিষয়ক ১টি, সায়েন্স ফিকশন ১টি এবং অন্যান্য বিষয়ের উপর ১৫টি নতুন বই রয়েছে।

এর মধ্যে শওকত আলীর ‘শুধু কাহিনী’ ইন্তামিন প্রকাশন, সুমন্ত আসলামের ‘প্রিয়ব্রত ব্যক্তিগত পাপ’ সময়, আনিসুল হকের ‘ও বন্ধু কাজল ভ্রমরা’ সময়, সেলিনা হোসেনের ‘আপন আলোয় দেখা’ সময়, সনৎ কুমার সাহার ‘একটু-আধটু পরাণ’ কথাপ্রকাশ, ইমদাদুল হক মিলনের ‘ভূতে নিল ইলিশ মাছ’ অনন্যা, হাসনাত আবদুল হাইয়ের ‘সময় অসময়’ আদর্শ, মোশতাক আহমেদের ‘অমর মানব’ অনিন্দ্য, নাসির আহমেদের ‘প্রতীক্ষা তোমার জন্য’ উৎস প্রকাশনীর উল্লেখযোগ্য।



এদিকে মেলার তিন দিন পার হয়ে গেলেও এখনো বেশ অগোছালো রয়েছে অমর একুশে গ্রন্থমেলা। নীতিমালায় অনুযায়ী ৩০ জানুয়ারি দুপুরের মধ্যে মেলা প্রস্তুত করা কথা থাকলেও এখনও সবটা গুছিয়ে উঠতে পারেনি বাংলা একাডেমি। সম্পূর্ণরূপে এখনো প্রস্তুত হয়নি মেলার মূল প্রাঙ্গণ সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। মেলার আয়োজক প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমি কর্তৃপক্ষ ‘সব ঠিক হয়ে যাওয়া’র প্রতিশ্রুতি দিলেও তা বাস্তবে লক্ষ্য করা যায়নি। ফলে বিশাল পরিসরের সুবিন্যস্ত বিন্যাসও মন ভরাতে পারছে না প্রকাশক ও দর্শনার্থীদের।

মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে এখনো চলছে তথ্যকেন্দ্র নির্মাণের কাজ। মেলার বিভিন্ন স্থানে এখনও স্তুপ হয়ে পড়ে আছে বালি। অনুপম প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী মিলনকান্তি নাথ বাংলানিউজকে বলেন, বালুর কারণে পাঠকরা স্বাচ্ছন্দ্যে আসতে পারছেন না।

তিনদিন পেরিয়ে গেলেও এখনও সব স্টলের নম্বর বসাতে পারেনি মেলা কর্তৃপক্ষ। যা নিয়ে হয়রানিতে পড়তে হচ্ছে পাঠকদের। মেলার অধিকাংশ স্টল বা প্যাভিলিয়নই বসেছে নম্বর ছাড়া। সে সঙ্গে তথ্যকেন্দ্র বা স্টল বিন্যাসের কোনো নির্দেশনা না থাকায় কারও কাছ থেকে জানা যাচ্ছেনা কোন স্টল কোথায়।

বাংলা একাডেমি অংশেও রয়েছে অব্যবস্থপনা। সেখানকার বহেড়াতলায় তিন দিন পেরিয়ে গেলেও নির্মাণ চলছে লিটল ম্যাগ কর্নারের। এখনও অর্ধেক স্টলের কাজ শেষ হয়নি। এবারের মেলায় লিটল ম্যাগ কর্নারে ১৩৬টি স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এসব অভিযোগের বিষয়ে গ্রন্থমেলা পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ড. জালাল আহমেদ বাংলানিউজকে বলেন, সব সমস্যা নির্ধারণ করা হয়েছে। শিগগিরই সব সমস্যার সমাধান করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০১৮
এইচএমএস/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa