ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মাঘ ১৪২৯, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১ রজব ১৪৪৪

বইমেলা

বইমেলায়ও জনপ্রিয় বিকাশ

শাহেদ ইরশাদ, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮০৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৭
বইমেলায়ও জনপ্রিয় বিকাশ বইমেলায়ও জনপ্রিয় বিকাশ

ঢাকা: প্রতিবছরের মতো এবারও অমর একুশে গ্রন্থমেলায় এসেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী নাসরিন সুলতানা। বিভিন্ন স্টলে  ঘুরে পছন্দের বই কিনছেন। আর এসবের মূল্য পরিশোধ করছেন নিজের বিকাশ একাউন্ট ব্যবহার করে।  

তিনি বলেন, ‘বিকাশে পেমেন্ট করে ১০ শতাংশ ক্যাশ ব্যাক পাচ্ছি। আবার মেলায় প্রকাশকের ছাড় রয়েছে ২৫ শতাংশ।

ফলে কাভার মূল্যের ৩৫ ভাগ কমে বই কিনতে পারছি’।

নাসরিন বলেন, বিকাশ একাউন্ট খুলেছিলাম মূলত বাবার নিকট পড়াশোনা ও হাত খরচের টাকা দেবো বলে। কিন্তু এখন মেলায় বিকাশের মাধ্যমে বইও কিনতে পারছি।

সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সরেজমিনে বইমেলায় গিয়ে বই ক্রেতাদের সঙ্গে আলাপ করে এ তথ্য জানা যায়।  

এবারের বইমেলায় অংশগ্রহণকারী দেশের স্বনামধন্য ১১২টি প্রকাশনা থেকে প্রকাশিত বই কেনা যাচ্ছে বিকাশ দিয়ে। বিকাশ পেমেন্টের মাধ্যমে বই কিনলে ১০ শতাংশ ক্যাশ ব্যাক পাচ্ছেন গ্রাহকরা। বইমেলার প্রথম দিন থেকে শুরু হওয়া এই অফারটি চলবে মেলার শেষ দিন পর্যন্ত।

বিকাশের মুখপাত্র জাহেদুল ইসলাম বলেন, “আমরা গ্রাহকদের নিকট থেকে যে সাড়া পাচ্ছি, তা খুবই উৎসাহ ব্যঞ্জক”।

উল্লেখ্য, বিগত তিন বছর বাংলা একাডেমি আয়োজিত বইমেলায় বই কেনার মূল্য বিকাশ দিয়ে পরিশোধে অনুরূপ ক্যাশব্যাক সুবিধা দিয়েছিলো বিকাশ।

তিনি বলেন, বিকাশ দিয়ে কেনাকাটায় কোনো অতিরিক্ত চার্জ প্রদান করতে হবে না।   গ্রাহক মূল্য পরিশোধ করার পরবর্তী দুই কর্ম দিবসের মধ্যেই তার বিকাশ একাউন্টে ক্যাশ ব্যাকের পরিমাণ জমা  হবে।

বিকাশ ব্যবহারকারীকে  প্রথমে *২৪৭# এ ডায়াল করে বিকাশ মেন্যুতে গিয়ে ‘৩’  নির্বাচিত করে ‘পেমেন্ট’ পছন্দ করতে হবে। এরপরে কিছু ইন্টার‌অ্যাক্টিভ ধাপ অনুসরণ করে এই সেবাটি গ্রহন করা যাবে।
 
জারিফের ঘটনাটি একটু ভিন্ন। বইপ্রেমী জারিফ চাকরি করেন জামালপুরে। একটি স্টলে বেশ কয়েকটি বই পছন্দ হলেও দাম পরিশোধ করতে গিয়েই ঘটল বিপত্তি। দেখলেন পকেটে নগদ টাকা যথেষ্ট নেই। এমন সময় দেখলেন বিকাশ দিয়েও ম‍ূল্য পরিশোধ করা যাচ্ছে। যদিও জারিফের বিকাশ একাউন্ট আছে কিন্তু তাতে পর্যাপ্ত টাকা ছিলনা। কিন্তু পছন্দের বই না কিনেও ফিরতে চাচ্ছিলেন না। হঠা‍ৎ করেই পেয়ে গেলেন সমাধান। এক বন্ধুকে ফোন করে তার একাউন্টে কিছু টাকা ‘বিকাশ’ করে দিতে বললেন। অতঃপর বিকাশ দিয়ে দাম পরিশোধ করে বই নিয়ে বাড়ি ফিরলেন।

শুধু নাসরিন বা জারিফ নন, বইমেলায় আগত অনেক দর্শনার্থীই বই কিনে দাম পরিশোধ করছেন বিকাশের মাধ্যমে।
 
এ প্রসঙ্গে একজন প্রকাশক বলেন, “বই মেলায় কেনাকাটা এখন শুধুমাত্র নগদ টাকায় কেনাকাটার মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। মেলায় আগত গ্রাহকরা বিকাশ, রকেট মোবাইল ব্যাংকিং এবং বিভিন্ন ব্যাংকের ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করেও কেনাকাটা করতে পারছেন”।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৭
এসই/বিএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa