ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মাঘ ১৪২৯, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১ রজব ১৪৪৪

বইমেলা

প্রিয় লেখকের বইয়ের সঙ্গে অটোগ্রাফ-ফটোগ্রাফ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২০৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৭
প্রিয় লেখকের বইয়ের সঙ্গে অটোগ্রাফ-ফটোগ্রাফ বইমেলায় মুহম্মদ জাফর ইকবাল-ছবি-দীপু মালাকার

ঢাকা: অমর একুশে গ্রন্থমেলায় লেখক মুহম্মদ জাফর ইকবালের আগমনে ভক্তদের মধ্যে উচ্ছ্বাস ছড়িয়েছে। পাশাপাশি ভক্তদের পেয়ে আনন্দ প্রকাশ করেন জাফর ইকবালও।

শুক্রবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান চত্বরে যান জাফর ইকবাল। সেখানে গিয়েই তিনি অটোগ্রাফগ্রাফ শিকারীদের কবলে পড়েন।

প্রিয় লেখকের কাছ থেকে অটোগ্রাফ নিতে শিশু-তরুণ এমনকি অনেক বৃদ্ধকেও ভিড় জমাতে দেখা যায়। অটোগ্রাফের সঙ্গে সঙ্গে অনেককে আবার ফটোগ্রাফেও ব্যস্ত দেখা যায়। কেউ বন্ধু বা স্বজনের হাতে ক্যামেরা দিয়ে ফ্রেমবন্দি হচ্ছিলেন তো, কেউ একেবারে নিজেই তুলে নিচ্ছিলেন সেলফি।

বইমেলায় মুহম্মদ জাফর ইকবাল-ছবি-দীপু মালাকারমুহম্মদ জাফর ইকবালের অটোগ্রাফ পেয়ে উচ্ছ্বসিত রাজধানীর সাউথ ব্রিজ স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী নাবিদ মুস্তাকিম বাংলানিউজকে বলে, জাফর ইকবাল স্যারের বই আমার খুব ভালো লাগে। আজকে প্রথম মেলায় এলাম। আর স্যারের ‘রিটিন’ বইটি কিনলাম অটোগ্রাফসহ।

মিরপুর বাংলা কলেজের শিক্ষার্থী কানিজ ফাতেমা বলেন, স্যারের অনেক বই পড়েছি। আজকে প্রথম অটোগ্রাফ নিলাম। আজকে স্যারের ‘শাহনাজ ও ক্যাপ্টেন ডাবলু’ বইটি কিনেছি।

ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী মোয়াজ বলে, স্যারের অনেক বই পড়েছি। আজ ‘রিটিন’ এবং ‘শাহনাজ ও ক্যাপ্টেন ডাবলু’ বই দু’টি কিনেছি।

ভক্তদের অটোগ্রাফ দেওয়ার বিষয়ে মুহম্মদ জাফর ইকবাল বাংলানিউজকে বলেন, আজকালতো মানুষ বই পড়েই না। তাই যখন কেউ বই নিয়ে আমার কাছে অটোগ্রাফ নিতে আসে আমি আনন্দের সঙ্গে তাদের অটোগ্রাফ দিই। আর প্রাণ ভরে দোয়া করি যেন  তারা বেশি বেশি করে বই পড়তে পারে। এরা বই পড়ে, এটা ভেবে আমার খুবই ভালো লাগছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৭

এমএইচকে/আরআর/এইচএ/

**ওদের আলোয় ‘প্রহর’ হলো আলোকিত​

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa