ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ শাবান ১৪৪৫

বইমেলা

একুশে বইমেলা-২০১৬

গণমাধ্যম সম্পর্কে ধারণা দিতে ডিআরইউ এর স্টল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৬
গণমাধ্যম সম্পর্কে ধারণা দিতে ডিআরইউ এর স্টল ছবি: দীপু / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বইমেলা থেকে: অমর একুশে গ্রন্থমেলায় প্রথমবারের মতো আছে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ)। গণমাধ্যম সম্পর্কে ধারণা দিতে ও সদস্যদের কর্মতৎপরতাকে উৎসাহিত করতে এ উদ্যোগ নিয়েছে সংগঠনটি।



বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে ভাষা শহীদদের ভাস্কর্যের পাশে ৭৩ নম্বর স্টলটি পেয়েছে এ সংগঠন। মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এর উদ্বোধন করেন।

সংগঠনের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদ এ উদ্যোগে সবার সহযোগিতা চেয়েছেন। তারা বলেন, এই প্রথম কোন সংগঠনকে স্টল দেওয়া হল।

কর্মব্যস্ততার মাঝেও যেসব সদস্য লেখা ও পড়ায় আন্তরিক রয়েছেন, তাদের উৎসাহ বাড়বে এ উদ্যোগে। এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এতে আগতরা গণমাধ্যম সম্পর্কে ধারণা পাবে।

পিআইবি’র মহাপরিচালক শাহ আলমগীর বলেন, পেশাগত জীবনে পাওয়া নানা অভিজ্ঞতার কারণে গণমাধ্যমকর্মীদের লেখনীতে কিছুটা বৈচিত্র্য থাকবে। এ উদ্যোগে ভালো ফল পাওয়া যাবে আশা করি।

সংগঠনের সাবেক সভাপতি শাহেদ চৌধুরী বলেন, ২০ বছরের এ সংগঠনটি এই প্রথম একুশে বইমেলায়। আশা করি, সদস্যরা উৎসাহিত হবেন।

সংগঠনের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক কাফি কামাল স্টল পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক তিনি বাংলানিউজকে বলেন, সংগঠনের কর্মপরিধি এতে বাড়লো। তৎপরতাও সবার জানার সুযোগ হবে। আমাদের প্রকাশনা সম্পর্কে সবার ধারণা হবে। আশা করি, এ উদ্যোগ ধারাবাহিকভাবে চলবে ভবিষ্যতেও। ‘টেলিভিশন সংবাদ ও সাংবাদিকতা’ নামের নতুন বইটির লেখক বেসরকারি টিভি চ্যানেল আরটিভি’র প্রতিবেদক মাইদুর রহমান রুবেল।

তিনি বাংলানিউজকে বলেন, এতে আমাদের জন্য ভালো হবে আশা করছি। অন্য স্টলের তুলনায় এখানে গণমাধ্যমকর্মী ও অন্যরা বেশি আসে। তাই ওখানেও বই থাকা মানে প্রচার ও বিক্রি বেশি হওয়ার আশা করা যায়।

সংগঠনের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা জানান, একুশে বইমেলার স্টলে ডিআরইউর নিজস্ব প্রকাশনা (রিপোর্টার্স ভয়েস, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী স্মরণিকা, নারী দিবসের বিশেষ প্রকাশনা, সেরা রিপোর্ট সংকলন ইত্যাদি) ছাড়াও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে প্রকাশিত সদস্যদের বই প্রদর্শনের জন্য রাখা হবে।

তারা জানান, বই বিক্রির ক্ষেত্রে একুশে গ্রন্থমেলার সকল নিয়ম-কানুন মেনে চলা হবে। স্টলে প্রদর্শনের ক্ষেত্রে ডিআরইউর নিজস্ব প্রকাশনাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হবে, সদস্যদের বই প্রদর্শনের ক্ষেত্রে প্রকাশের সময়কাল বিবেচনায় সর্বশেষ প্রকাশিত বই সামনে রাখার নীতি অনুসরণ করা হবে।

এক্ষেত্রে ডিআরইউ’র সাবেক সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক এবং সিনিয়র সদস্যদের বই প্রাধান্য পাবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০২, ২০১৬
এসকেএস/আরআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।