ব‌রিশাল: শিগগির চুক্তিভিত্তিক ১৫১ জন জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

">
bangla news

শিগগির চুক্তিভিত্তিক জনবল নিয়োগ দেবে শেবাচিম কর্তৃপক্ষ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম | আপডেট: ২০১৯-০৮-৩১ ৯:৫২:৫৪ এএম
শিগগির চুক্তিভিত্তিক জনবল নিয়োগ দেবে শেবাচিম কর্তৃপক্ষ
সভায় শেবাচিম হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি, পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক (মন্ত্রী পদ মর্যাদায়) আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ। ছবি: বাংলানিউজ

ব‌রিশাল: শিগগির চুক্তিভিত্তিক ১৫১ জন জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার (৩০ আগস্ট) বিকেলে শেবাচিম হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি, পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক (মন্ত্রী পদমর্যাদায়) আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ হাসপাতালের উন্নয়নের জন্য আরও একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

সভার সদস্য সচিব ও হাসপাতাল পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন বলেন, আগামী ১৫ থেকে এক মাসের মধ্যে অর্থ মন্ত্রণালয়ের ছাড়পত্র পেলেই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদিত ১৫১ পরিছন্ন কর্মী ও নিরাপত্তা প্রহরী পদে চুক্তিভিত্তিক জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। সেক্ষেত্রে জনবল সরবরাহকারী কোনো ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতা না নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সরসারি (প্রার্থীর সঙ্গে চুক্তি করে) এ নিয়োগ দেবে।

এছাড়াও হাসপাতালের নিরাপত্তার জন্য আপাতত ৪০ জন আনসার সদস্য রাখার সিদ্ধান্ত হয়। এ বিষয়ে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামিম এমপি অচিরেই জেলা আনসার কমান্ডারের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়েছেন।

সভায় আগামী ডিসেম্বরে মধ্যে হাসপাতালের পূর্ব প্রান্তে নিমাণাধীন পাঁচ শয্যার মডেলাইজড হাসপাতালটি কর্তৃপক্ষের নিকট হস্তান্তর করার নির্দেশ দিয়েছেন ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এমপি।

সভায় ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসা সেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে হাসপাতালের পরিচালক, চিকিৎসক, নার্স ও স্টাফদের নিরলস দায়িত্ব পালনে সন্তোষ প্রকাশ করে আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ বলেন, হাসপাতালটিতে আরও আধুনিকতার ছোঁয়া লাগাতে সবধরনের কাজে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। সেক্ষেত্রে এখানকার চিকিৎসকসহ স্টাফদের দায়িত্বহীনতার অভিযোগ পেলে তাতে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। এছাড়া সভায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য হাসপাতাল এলাকাতেই বর্জ্য ধ্বংস করণ মেশিন বসানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

এছাড়া হাসপাতালের সামনের থাকা বেসরকারি অ্যাম্বুলেন্সের লাইসেন্স যাচাই-বাছাই করার নির্দেশ দেওয়া হয় গত সভায় সাত সদস্যের গঠিত কমিটিকে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামিম এমপি, বরিশাল-৬ আসনের সংসদ সদস্য ইসরাত জাহান রত্মা, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দা রুবিনা আক্তার মিরা, বরিশাল মহানগর পুলিশের কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো. জাকারিয়া, হাসপাতাল পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন, অধ্যক্ষ ডা. সৈয়দ মাকসুমুল হক, হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. মো. আব্দুর রাজ্জাক, বাংলাদেশে মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) বরিশাল জেলার সভাপতি ডা. মো. ইসতিয়াক হোসেন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৫২ ঘণ্টা, আগস্ট ৩১, ২০১৯
এমএস/এমএমইউ/আরআইএস/

Phone: +88 02 8432181, 8432182, IP Phone: +880 9612123131, Newsroom Mobile: +880 1729 076996, 01729 076999 Fax: +88 02 8432346
Email: news@banglanews24.com , editor@banglanews24.com
Marketing Department: 01722 241066 , E-mail: marketing@banglanews24.com

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কপিরাইট © 2019-11-21 23:40:53 | একটি ইডব্লিউএমজিএল প্রতিষ্ঠান