খতিবরা মসজিদে পরিবেশগত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সচেতনতা সৃষ্টি করতে বিভিন্ন বক্তৃতা ও আলোচনা রাখবেন। পাশাপাশি ‘সবুজ খুতবা’র প্রচারাভিযান করবেন। আর এভাবে মানবতার সম্মুখীন হওয়া বিভিন্ন চ্যালেজ্ঞের ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক করে শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) ‘সবুজ খুতবা’ উপস্থাপন করবেন। এরপর সোমবার (২২ এপ্রিল) ‘আর্থ ডে’ পালন করবেন।

">
bangla news

কানাডায় ‘সবুজ খুতবা’র মাধ্যমে ‘আর্থ ডে’ পালন হবে

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম | আপডেট: ২০১৯-০৪-১৭ ৯:২৭:৫৭ পিএম
কানাডায় ‘সবুজ খুতবা’র মাধ্যমে ‘আর্থ ডে’ পালন হবে
কানাডায় ‘সবুজ খুতবা’র মাধ্যমে ‘আর্থ ডে’ পালন হবে

খতিবরা মসজিদে পরিবেশগত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সচেতনতা সৃষ্টি করতে বিভিন্ন বক্তৃতা ও আলোচনা রাখবেন। পাশাপাশি ‘সবুজ খুতবা’র প্রচারাভিযান করবেন। আর এভাবে মানবতার সম্মুখীন হওয়া বিভিন্ন চ্যালেজ্ঞের ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক করে শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) ‘সবুজ খুতবা’ উপস্থাপন করবেন। এরপর সোমবার (২২ এপ্রিল) ‘আর্থ ডে’ পালন করবেন।

‘সবুজ খুতবা’ ক্যাম্পেইনের অন্যতম উদ্যোক্তা ও কানাডার পরিবেশবিষয়ক ওয়েবসাইট ‘খালিফা.কম’র প্রকাশক মুয়াজ নাসির বলেন, ‘আমরা মসজিদ, স্কুল (ইসলামিক), বিশ্ববিদ্যালয় ও ইসলামী প্রতিষ্ঠানগুলোকে শুক্রবার ‘সবুজ খুতবা’ উপস্থাপন করার জন্য উৎসাহিত করছি। সৃষ্টিরাজির কল্যাণ-বরকত, আশীর্বাদ, সৌন্দর্য ও নান্দনিকতা উদযাপন এবং মানবতার মুখোমুখি হওয়া পরিবেশগত বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ সম্পর্কেও সচেতনতা বাড়ানোর জন্য আলোচনা করতে অনুরোধ করছি।’

দুই বছর আগে জুমার দিন খুতবায় পরিবেশবিষয়ক বক্তব্য রাখছেন কানাডার খতিব। ছবি: সংগৃহীত

তিনি আরো বলেন, এ বছর ‘সবুজ খুতবা’ প্রচারণার আলোচ্য বিষয় ‘জলবায়ু পরিবর্তন: বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ঐক্যবদ্ধ কাজ’। এর মাধ্যমে আমরা গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ে তাদের অংশগ্রহণ ও অবদান মূল্যায়ন এবং বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের প্রভাব বিবেচনা করার জন্য সবাইকে উত্সাহিত করবো।

‘সবুজ খুতবা’ ক্যাম্পেইনটি ২০১২ খ্রিস্টাব্দে কানাডায় চালু করা হয়। এর মাধ্যমে প্রতি বছর সারা জনসাধারণের জন্য পরিবেশ বিষয়ে প্রেরণা সৃষ্টিকারী বক্তব্য দিতে বিশ্বের খতিবদের উৎসাহিত করা হয়। এর মাধ্যমে খতিব ও কোরআনের বার্তাবাহকরা পৃথিবীর পরিবেশ ও জলবায়ুর কথা মুসল্লিদের স্মরণ করিয়ে দেন।

‘সবুজ খুতবা’ ক্যাম্পেইনের অফিসিয়াল বিজ্ঞপ্তি। ছবি: সংগৃহীত

প্রসঙ্গত, সর্বপ্রথম ‘আর্থ ডে’ অনুষ্ঠিত হয় ১৯৭০ খ্রিস্টাব্দের ২২ শে এপ্রিল। তৎকালীন এ অনুষ্ঠানটি ২০ মিলিয়ন আমেরিকানকে সক্রিয় করে তোলে এবং আধুনিক পরিবেশ আন্দোলনের সূচনা করার ক্ষেত্রে ব্যাপকভাবে কৃতিত্ব লাভ করে। বর্তমানে সমগ্র বিশ্বে এক বিলিয়নেরও বেশি মানুষ ‘আর্থ ডে’ বা ‘পৃথিবী দিবস’র কার্যক্রমগুলো অংশ নেন। এটি বিশ্বের বৃহত্তম নাগরিক অনুষ্ঠান হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।

ইসলাম বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। লেখা পাঠাতে মেইল করুন: bn24.islam@gmail.com

বাংলাদেশ সময়: ২১২৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০১৯
এমএমইউ

Phone: +88 02 8432181, 8432182, IP Phone: +880 9612123131, Newsroom Mobile: +880 1729 076996, 01729 076999 Fax: +88 02 8432346
Email: news@banglanews24.com , editor@banglanews24.com
Marketing Department: 01722 241066 , E-mail: marketing@banglanews24.com

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কপিরাইট © 2019-10-18 20:30:43 | একটি ইডব্লিউএমজিএল প্রতিষ্ঠান