bangla news

চারুকলায় পাঁচ তরুণের শিল্পকর্ম প্রদর্শনী

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম | আপডেট: ২০১০-০৭-০৯ ১২:২১:৫৫ এএম
চারুকলায় পাঁচ তরুণের শিল্পকর্ম প্রদর্শনী

৮ জুলাই থেকে চারুকলার জয়নুল গ্যালারিতে শুরু হয়েছে ‘টোন-ওয়ান ওয়ান সিক্স’ শিরোনামে পাঁচ তরুণের দলীয় শিল্পকর্ম প্রদর্শনী। শিল্পীরা হলেন সুমন বৈদ্য, রত্নেশ্বর সূত্রধর, মানবেন্দ্র ঘোষ, দীপক কুমার সরকার ও অসীম হালদার।

৮ জুলাই থেকে চারুকলার জয়নুল গ্যালারিতে শুরু হয়েছে ‘টোন-ওয়ান ওয়ান সিক্স’ শিরোনামে পাঁচ তরুণের দলীয় শিল্পকর্ম প্রদর্শনী। শিল্পীরা হলেন সুমন বৈদ্য, রত্নেশ্বর সূত্রধর, মানবেন্দ্র ঘোষ, দীপক কুমার সরকার ও অসীম হালদার। এখানে কেউ পোড়ামাটির ধারার কাজ, কেউ জলরঙে আঁকা ছবি, কেউ আবার ভাস্কর্য নিয়ে হাজির হয়েছেন।


গ্যালারিতে ঢুকলেই দর্শকদের চোখে পড়বে শিল্পীদের মধ্যে নিজস্ব চিন্তাকে বিভিন্ন নিরীক্ষামূলক কাজের মধ্য দিয়ে প্রকাশ করার প্রবণতা।


অসীম হালদারের পোড়ামাটির ধারার কাজ অনেকেরই দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। তিনি এখানে সিরামিককে প্রথাগত তৈজস উপাদান থেকে সরিয়ে যুক্ত করেছেন নিজস্ব শিল্পভাবনা।


দীপকের ভাস্কর্যের মধ্যে রয়েছে প্রকৃতি ও মানুষকে একীভূত করে তার ভেতরের মুখোশটাকে কিম্ভূত মুখম-লের মাধ্যমে প্রকাশ করা। তার কাজগুলি ফাইবারে করা।


জলরঙে ছবি এঁকেছেন রত্নেশ্বর সূত্রধর ও সুমন বৈদ্য। জলরঙে আঁকা ছবির মধ্য দিয়ে নিজেকে যেন অনেকটা প্রথাগতভাবেই প্রকাশ করেছেন রত্নেশ্বর। কিন্তু এই প্রকাশে লক্ষ করা যায় তুলির আঁচড়ে নিজস্ব মুগ্ধতাকে, বিষাদকে দর্শকদের মধ্যে ছড়িয়ে দেয়ার প্রবণতা। অপরদিকে সুমনের কাজের মধ্যে স্পষ্ট হয়ে ওঠে প্রাচ্যরীতির করণকৌশল।
মানবেন্দ্র ঘোষ খড় দিয়ে প্রতিমা তৈরির মাধ্যমে ভাস্কর্য নির্মাণ করেছেন। তার ভাস্কর্যের নির্মাণশৈলী অনেক শিল্পানুরাগীরই দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে।

শিল্পীরা প্রত্যেকেই আলাদা একটি শিল্পভাষা তৈরির প্রত্যয় নিয়ে বর্তমানে এমএফএ করছেন। এরা চারুকলা অনুষদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধু।

প্রদর্শনী চলছে বেলা ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। শেষ হবে ১৪ জুলাই।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় : ২০৫৫, জুলাই ০৯, ২০১০

Phone: +88 02 8432181, 8432182, IP Phone: +880 9612123131, Newsroom Mobile: +880 1729 076996, 01729 076999 Fax: +88 02 8432346
Email: news@banglanews24.com , editor@banglanews24.com
Marketing Department: 01722 241066 , E-mail: marketing@banglanews24.com

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কপিরাইট © 2019-12-11 17:02:08 | একটি ইডব্লিউএমজিএল প্রতিষ্ঠান