ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ মে ২০২২, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

এভিয়াট্যুর

রিজেন্ট এয়ারের ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

এভিয়াট্যুর ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৪৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ২০, ২০১৭
রিজেন্ট এয়ারের ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেননসহ কেক কাটছেন রিজেন্ট এয়ারের কর্মকর্তারা

ঢাকা: জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় বেসরকারি এয়ারলাইন্স রিজেন্ট এয়ারের সপ্তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটে ৫০ শতাংশ ছাড়ও দিয়েছে সংস্থাটি।

শনিবার (১৮ নভেম্বর) হোটেল রেডিসন ব্লুতে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন ও সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।  

বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ উড়োজাহাজ যোগাযোগ ব্যবস্থায় রিজেন্ট এয়ারের অবদানের কথা তুলে ধরে রাশেদ খান মেনন সংস্থাটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শুভেচ্ছা জানান।

সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর তার বক্তব্যে রিজেন্ট এয়ারের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করেন।  

এছাড়া সূচনা বক্তব্যে রিজেন্ট এয়ারের সিইও লে. জে. এম ফজলে আকবর যাত্রীসেবা ও রিজেন্ট এয়ারের ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানে রিজেন্টে এয়ারের চেয়ারম্যান ইয়াসিন আলী ও এডি মাশরুফ হাবিব ছাড়াও সংস্থাটির সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের সঙ্গে রিজেন্ট এয়ারের কর্মকর্তারা২০১০ সালে এইচজি এভিয়েশন নামে যাত্রা শুরু করে রিজেট এয়ার ব্র্যান্ড নাম নিয়ে আকাশে ডানা মেলে হাবিব গ্রুপের এ এয়ারলাইন্স সংস্থাটি।  

প্রতিষ্ঠার প্রথম বছরেই ‘বেস্ট এয়ার লাইন অব দ্যা ইয়ার’ খেতাব নিজেদের করে নেয় রিজেন্ট। একবছর পরেই দেশের সীমানা পেরিয়ে আর্ন্তজাতিক রুটে নাম লেখায়। দু’টি ড্যাশ-৮ কিউ উড়োজাহাজ দিয়ে যাত্রা শুরু করা রিজেন্ট এয়ারের বহরে এখন যুক্ত হয়েছে আরো ছয়টি বোয়িং ৭৩৭ এয়ারক্রাফট। সুপরিসর এসব উড়োজাহাজ ব্যবহৃত হচ্ছে সাতটি আন্তর্জাতিক ও দু’টি অভ্যন্তরীণ রুটে যাত্রী পরিবহনে।  

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে রিজেন্ট এয়ারের কর্মকর্তারাএদিকে সপ্তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ১২-৩০ নভেম্বরের মধ্যে টিকিট কেটে ১৫ জানুয়ারি থেকে ১৫ জুন ভ্রমণের জন্য সাতটি আর্ন্তজাতিক ও দু’টি অভ্যন্তরীণ রুটে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় ঘোষণা করেছে দেশের অন্যতম এ এয়ারলাইন্সটি। বর্ষপূর্তির ছাড়ের পর সব ট্যাক্সসহ ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে ব্যাংকক যাওয়া-আসা যাবে ১৫ হাজার ৯৯৯ টাকা, কলকাতা ৮ হাজার ৪৯৯, মাসকাট ২২ হাজার ৪৯৯ এবং দোহা ২৬ হাজার ৪৯৯ টাকায়।

এছাড়া ঢাকা থেকে কুয়ালালামপুর যাওয়া-আসা ১৭ হাজার ৯৯৯ টাকা, সিঙ্গাপুর ১৭ হাজার ৯৯৯, কাঠমান্ডু ১৩ হাজার ৯৯৯ এবং অভ্যন্তরীণ রুট চট্টগ্রামে ৪ হাজার ৫শ এবং কক্সবাজার ৬ হাজার ৪৯৯ টাকা করা হয়েছে। নির্ধারিত সময়ে টিকিট কেটে যাত্রীরা তার পছন্দের সময়ে ভ্রমণ করতে পারবেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ২০, ২০১৭
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa