ঢাকা, শনিবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ জুন ২০২২, ২৫ জিলকদ ১৪৪৩

এভিয়াট্যুর

নতুন ৩ বোয়িংয়ে আন্তর্জাতিক রুট মাতাবে ইউএস-বাংলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩২৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৬
নতুন ৩ বোয়িংয়ে আন্তর্জাতিক রুট মাতাবে ইউএস-বাংলা

ঢাকা: বাংলাদেশের অন্যতম বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস-বাংলা’র বহরে যুক্ত হচ্ছে তিনটি নতুন বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট। এগুলোর মধ্যে একটি শাহজালালে নামবে চলতি সেপ্টেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে।

বাকি দু’টি আসবে আগামী অক্টোবর ও ডিসেম্বরে।

এই তিন অত্যাধুনিক এয়ারক্র্যাফট দিয়ে কলকাতা, কুয়ালালামপুর, ব্যাংকক, সিঙ্গাপুর, মাস্কাট, দোহাসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।

এগুলোতে রয়েছে ১৫৮টি করে আসন। এর মধ্যে ৮টি বিজনেস ক্লাস এবং বাকী ১৫০টি প্রিমিয়াম ইকোনমি ও ইকোনমি ক্লাসের আসন। যাত্রীদের সুবিধার্থে প্রতিটি এয়ারক্রাফটেই থাকছে চারটি করে ল্যাভাটরি।

২০১৪ সালের ১৭ জুলাই নিউ জেনারেশনের দু’টি এয়ারক্রাফট ড্যাশ ৮-কিউ৪০০ নিয়ে আকাশে ওড়ে ইউএস-বাংলা। বর্তমানে এয়ারলাইন্সটির বহরে তিনটি ৭৬ আসন বিশিষ্ট ড্যাশ ৮-কিউ৪০০ রয়েছে।

ঢাকা থেকে যশোরে উদ্বোধনী ফ্লাইট পরিচালনার মাধ্যমে যাত্রা শুরু করা ইউএস-বাংলা ‘ফ্লাই ফাস্ট-ফ্লাই সেফ’ স্লোগান নিয়ে গত দু’বছরের অধিক সময়ে আঞ্চলিক রুট ঢাকা-কাঠমুন্ডু-ঢাকাসহ অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন গন্তব্যে পনের হাজারেরও অধিক ফ্লাইট অত্যন্ত সফলভাবে পরিচালনা করেছে। শিগগিরই ঢাকা-পারো রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা।

গত দুই বছরে এয়ারলাইন্সের অভাবনীয় সফলতার জন্য বাংলাদেশ মনিটর কর্তৃক ডমেস্টিক সেক্টরে ‘বেস্ট এয়ারলাইন অব দ্য ইয়ার-২০১৫’ অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছে ইউএস-বাংলা। এছাড়া বাংলাদেশ ট্রাভেলার্স ফোরাম কর্তৃক পরপর দু’বছর ‘বেস্ট ডমেস্টিক এয়ারলাইন অব দ্যা ইয়ার-২০১৪ ও ২০১৫’ নির্বাচিত হয়েছে।

যাত্রা শুরুর পর থেকে অনটাইম ফ্লাইট অপারেশন, আন্তর্জাতিক মানের কেবিন সার্ভিস, উন্নত মানের নিজস্ব ক্যাটারিং সার্ভিসের কারণে যাত্রী সাধারণের কাছে একটি নির্ভরযোগ্য এয়ারলাইন্স হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে ইউএস-বাংলা। এই এয়ারলাইন্সটির সঠিক সময়ে ফ্লাইট পরিচালনার রেকর্ড শতকরা ৯৮.৭ ভাগ। বাংলাদেশের প্লেন পরিবহনখাতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স-ই একমাত্র কোম্পানি যা আইএসও ৯০০১:২০০৮ সার্টিফায়েড। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটির ডিভিশন অব কর্পোরেশন এর একমাত্র তালিকাভুক্ত বাংলাদেশি এয়ারলাইন কোম্পানি।

আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধা রয়েছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সে, যার মধ্যে রয়েছে- ফ্রিকোয়েন্ট ফ্লাইয়ার প্রোগ্রাম ‘স্কাই স্টার’সহ আরো অনেক সেবাধর্মী ও সময়োপযোগী সার্ভিস। চলতি সপ্তাহে ইউএস-বাংলা’র নিজস্ব ইন-ফ্লাইট ম্যাগাজিন ‘ব্লুস্কাই’ যাত্রীদের বিনোদনের জন্য প্রকাশ করতে যাচ্ছে।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ এয়ারলাইন্সের অগ্রযাত্রায় সহযোগিতার জন্য যাত্রী, ট্রাভেল এজেন্সি, সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারী সংস্থা এবঙ সব ধরনের সংবাদ মাধ্যম কর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩০৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮
জেডএম/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa