ঢাকা, বুধবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ মে ২০২২, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

অস্ট্রেলিয়া

সিডনিতে যুবলীগের বিজয় দিবস উদযাপন

নোমান শামীম, সিডনি থেকে | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৫৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৪
সিডনিতে যুবলীগের বিজয় দিবস উদযাপন ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সিডনি: মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, অস্ট্রেলিয়া শাখা।

রোববার (২৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সিডনির বেলমোর কমিউনিটি সেন্টারে ডা. লাভলী রহমানের সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।


 
সভায় ১ মিনিট নীরবতা পালনের মধ্য দিয়ে সদ্য প্রয়াত কেন্টারবুরি যুবলীগ সভাপতি শাহীনের আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন ও রূহের মাগফেরাত কামনা করা হয়।
 
অস্ট্রেলিয়া যুবলীগের পক্ষ থেকে চুয়াডাঙ্গা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মুক্তিযোদ্ধা আজাদুল ইসলাম আজাদ এবং তার সহধর্মিনী নাজনিন ইসলামকে ফুল ও ক্রেস্ট দিয়ে বরণ করা হয়।
 
আলোচনা পর্বে আরও বক্তব্য রাখেন অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল হক, বিশেষ অতিথি চুয়াডাঙ্গা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আজাদুল ইসলাম আজাদ, অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের প্রধান উপদেষ্টা গামা আব্দুল কাদির ও আওয়ামী লীগ নেতা ডা. নুর-উর-রহমান খোকন, অস্ট্রেলিয়া যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও মাসিক মুক্তমঞ্চ’র সম্পাদক আল-নোমান শামীম, বিখ্যাত কলামিস্ট ও ছড়াকার অজয় দাশগুপ্ত, কলামিস্ট ও কথাসাহিত্যিক ড. শাখাওয়াৎ নয়ন, যুবলীগ নেতা খালেদ এবং অস্ট্রেলিয়া ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম রুবেল প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিপক্ষের সব শক্তি উন্মুক্ত হয়ে পড়েছে। তারা ন্যাক্কারজনকভাবে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও ঐতিহ্যের ওপর আক্রমণ করছে।

লন্ডন প্রবাসী তারেক রহমানের বক্তব্যের নিন্দা প্রকাশ করে যুবলীগ নেতা আল-নোমান শামীম বলেন, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমানের কবরের নামফলকে পাকিস্তানিরা ‘গাদ্দার’ লিখে দিয়েছিল। স্বাধীনতার ৪৩ বছর পর আজ তারেক রহমান পাকিস্তানিদের সুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে ‘রাজাকার’ বললেন।

কলামিস্ট, ছড়াকার অজয় দাশগুপ্ত সবাইকে অনুরোধ করে বলেন, জিয়াউর রহমানের ওই ‘কুপুত্রটির’ নাম যাতে কেউ না নেয়। যে মুখে আমরা বঙ্গবন্ধুর নাম নেই, বাংলাদেশের নাম নেই, ধর্মগ্রন্থ পাঠ করি সেই মুখে ওই ‘কুলাঙ্গার’র নাম উচ্চারিত হতে পারে না। ওই  কুলাঙ্গারের নাম নিলে আমাদের মুখ অপবিত্র হয়ে যাবে।
 
গামা আব্দুল কাদির এবং ডা. লাভলী রহমান বলেন, জার্মানিতে নাৎ‍সিবাদের পক্ষে কথা বললে জেল জরিমানা হয়। তাহলে বাংলাদেশে পাকিস্তানপন্থিদের বিরুদ্ধে কেন একই শাস্তি হবে না?

সিরাজুল ইসলাম বঙ্গবন্ধু এবং মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে যাতে কেউ কোনো রকম অসম্মান কিংবা ইতিহাস বিকৃতি করতে না পারে, সেজন্য আইন পাস করে শাস্তির দাবি জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

অস্ট্রেলিয়া এর সর্বশেষ

Alexa