bangla news

লালন নিয়ে র‌্যামন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-০২-২৫ ৩:০১:০৮ এএম

‘জাত গেল জাত গেল বলে/একি আজব কারখানা/সত্য কাজে কেউ নয় রাজি/সবই দেখি তানা না না’।

ঢাকা: ‘জাত গেল জাত গেল বলে/একি আজব কারখানা/সত্য কাজে কেউ নয় রাজি/সবই দেখি তানা না না’।

সময়ের কালপর্বে প্রায় দুই শ’ বছরেরও অধিক পূর্বে নিতান্তই সাধারণ এক অজ পাড়াগায়ের প্রিয় কুটিরে বসে যে মানুষটি সৃষ্টি করেছেন আত্মদর্শন ও মানবতাবাদী এরকম অসংখ্য পদ আর উপহার দিয়েছেন নতুন এক আধ্যাত্মিকতা ও আত্মদর্শনের জগত, তিনিই ফকির লালন শাহ। চরম অস্তিত্ব ও পরম তত্ত্বের সন্ধানী লালন ছেউড়িয়ার আখড়াতেই প্রকাশ করেছিলেন তার ঐশী জ্ঞানের এইসব দিব্যবাণী। গেয়েছিলেন সেই অমর সত্ত্বার প্রশস্তি গীত। লালন যে বাণী মানুষের মাঝে প্রচার করেছেন, তা নিয়ে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের কবি, লেখক, দার্শনিকরা কাজ করেছেন, করছেন। আর বাংলাদেশে লালন নিয়ে প্রকাশনা জগতে নিরন্তর কাজ করে চলেছে র‌্যামন পাবলিশার্স।

র‌্যামন পাবলিশার্সের কর্ণধার সৈয়দ রহমতু্ল্লাহ রাজন বলেন, শেকড় সন্ধানী এবং মননশীল বই আমরা প্রকাশ করে আসছি। সেই ধারাবাহিকতায় এবারের বইমেলায় লালনের দুটি বই শ্রী অনুদাসের ‘লালনের সাঁইজী’ এবং ড. হাসান রাজার ‘লালন দর্শন’।

লালনের ওপর একাধিক বই ছাড়াও এ প্রকাশনার বেশকিছু মননশীল বই এসেছে এবারের গ্রন্থমেলায়। যা অগ্রসর পাঠকদের আত্মার খোরাক জোগাবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১২

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

শিল্প-সাহিত্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
db 2012-02-25 03:01:08