bangla news

শ্রাবণ এনেছে ‘কার্ল মার্কসের ক্যাপিটালের প্রাথমিক পাঠ’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-০২-২২ ৮:০৫:০০ এএম

তেলেগু ভাষায় এই গ্রন্থ লেখার আগে রঙ্গনায়াকামা ও বি. আর. বাপুজি মিলে ১৯৭৫ খ্রিস্টাব্দ থেকে মূল ক্যাপিটাল গ্রন্থের হুবহু তেলেগু অনুবাদ শুরু করেন, যা সমাপ্ত করতে প্রতিটা ২০ পৃষ্ঠার মোট ৭০টা নোট বই লেগেছে, এই কাজ সমাপ্ত করতে তাদের ৭/৮ বছর লেগেছে।

বইমেলা থেকে: তেলেগু ভাষায় এই গ্রন্থ লেখার আগে রঙ্গনায়াকামা ও বি. আর. বাপুজি মিলে ১৯৭৫ খ্রিস্টাব্দ থেকে মূল ক্যাপিটাল গ্রন্থের হুবহু তেলেগু অনুবাদ শুরু করেন, যা সমাপ্ত করতে প্রতিটা ২০ পৃষ্ঠার মোট ৭০টা নোট বই লেগেছে, এই কাজ সমাপ্ত করতে তাদের ৭/৮ বছর লেগেছে।

তেলেগুতে তখন পর্যন্ত ক্যাপিটাল গ্রন্থ অনুবাদ হয়নি। কিন্তু পরবর্তী সময়ে এটা অনুবাদ হয়েছে। প্রকাশের উদ্দেশ্যে তারা এই অনুবাদ করেননি, মাতৃভাষায় বার বার পড়ে ক্যাপিটাল গ্রন্থের মূল চিন্তাকে আত্মস্থ করতেই তারা এই অনুবাদ করেন। ইংরেজি অনুবাদও তারা বহুবার পড়েছেন, এভাবে এই গ্রন্থ যতদূর সম্ভব ভালোভাবে আত্মস্থ করেই রঙ্গনায়াকামা ক্যাপিটাল গ্রন্থের প্রাথমিক পাঠ হিসেবে এই গ্রন্থ লেখায় হাত দেন।

ভূমিকায় বাপুজি লিখছেন, ‘রঙ্গনায়াকামা বলছেন- একজন উচ্চ শিক্ষিত বুদ্ধিজীবী এই প্রাথমিক পাঠ পড়ে ভাবতে পারেন, যেসব পাঠক খুব কম জানেন তাদের কথা মাথায় রেখে এই বই লেখা হয়েছে, খুবই ভালো কথা, কারণ এটা আমার জন্য আনন্দেরই বটে। তবে একজন বোদ্ধা পাঠক যদি মূল ইংরেজি পড়ে আরো জানতে চান, সেটা তো ভালোই হবে, তাতে আমার কোন আপত্তি নেই। কিন্তু যে কোনো নতুন বিজ্ঞান একজন শিক্ষিত ব্যক্তির কাছে যেমন একজন অল্প শিক্ষিত পাঠকের কাছেও তেমন। তাই এমন নতুন বিজ্ঞান বিষয়ক গ্রন্থের সহজ পাঠ হিসেবে কোন প্রাথমিক পাঠ যদি লেখা হয়, সেটা এই দুই ধরনের পাঠকের কাছেই তো সুবিধাজনক হবে। যে কোনো বিষয় সহজে স্বল্প সময়ে জানতে পারাটাই তো পাঠকের জন্য ভালো।’

শুরুতেই রঙ্গনায়াকামার বিবেচনার বিষয় ছিল কাদের উদ্দেশ্যে, কেন এই গ্রন্থ লিখতে হবে। মাধ্যমিক পাস বা তার নিচের পাঠকদের কথা মাথায় রেখেই তিনি এই গ্রন্থ লেখায় অগ্রসর হন। এক্ষেত্রে রঙ্গনায়াকামা মূল ক্যাপিটাল গ্রন্থে অনুসৃত ক্রমানুবর্তিতা কঠোরভাবে অনুসরণ করেছেন। তারা বলছেন, ক্যপিটাল গ্রন্থের তেলেগু অনুবাদ ও ইংরেজি অনুবাদ তারা বহুবার পড়েছেন, এই প্রাথমিক পাঠও তারা বহুবার পড়েছেন এবং সময় পেলে এখনও পড়েন, তবুও যতবার পড়েন মার্কসের এই মহাকীর্তি ততই সহজ হয়ে আসে। তাহলে একজন নতুন পাঠকের জন্য ক্যাপিটাল গ্রন্থ আত্মস্থ করতে কীভাবে এবং কোন পদ্ধতিতে অগ্রসর হতে হবে? এটা এক বিশাল প্রশ্ন।  

তাই বাংলা ভাষায়  কার্ল মার্কসের ক্যাপিটাল গ্রন্থের এই সহজ পাঠ বইমেলায়  এনেছে ‘শ্রাবণ’ প্রকাশনী। তেলেগু থেকে বাংলায় অনুবাদ করেছেন শেখর রহিম। প্রচ্ছদ অলঙ্করণে রবীন আহসান।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১২

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

শিল্প-সাহিত্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
db 2012-02-22 08:05:00