bangla news

ভার্চুয়াল গ্যালারিতে ঘরে বসেই দেখুন জাতীয় জাদুঘর

হোসাইন মোহাম্মদ সাগর, ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-৩১ ১১:৪২:৪০ এএম
ইন্টারনেটে জাতীয় জাদুঘরের ভার্চুয়াল গ্যালারিতেই দেখা যাবে সেখানে রক্ষিত প্রত্নসামগ্রী।

ইন্টারনেটে জাতীয় জাদুঘরের ভার্চুয়াল গ্যালারিতেই দেখা যাবে সেখানে রক্ষিত প্রত্নসামগ্রী।

ঢাকা: করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে এক প্রকার ‘লকডাউন’ অবস্থায় দেশবাসী। এখন প্রায় সবাই ঘরবন্দি। তবে ঘরে বসে এসময়টা কাজে লাগানো যেতে পারে নিজের দেশ ও দেশের সম্পদ সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে। তাই এ সুযোগটা কাজে লাগিয়ে ঘুরে আসতে পারেন জাতীয় জাদুঘর থেকে।

কী ভাবছেন? ঘরবন্দি অবস্থায় জাদুঘরে যাবেন কীভাবে! জাতীয় জাদুঘরে রাখা প্রত্নসম্পদ দেখতে এখন আর রাজধানীর শাহবাগে ছুটে যেতে হবে না। ঢাকার দূর প্রান্ত থেকে যানজট ঠেলে যেমন আসতে হবে না, তেমনি প্রত্যন্ত গ্রাম থেকেও আর ঢাকা আসতে হবে না এ জাদুঘরে। বরং জাতীয় জাদুঘরই এখন চলে গেছে আপনার কাছে। শুধু একটু চোখ খুলে দেখে নিন।

জাতীয় জাদুঘর এখন ইন্টারনেট দুনিয়ায়। বিশ্বের যেকোনো স্থান ও প্রান্ত থেকে জাতীয় জাদুঘরের ভার্চুয়াল গ্যালারি দেখা যাবে নির্দিষ্ট ঠিকানায় গিয়ে। ক্লিক করার পরই চোখের সামনে একে একে ভেসে উঠবে জাদুঘরের গ্যালারিগুলো। ভেতরে প্রবেশ করে ৩৬০ ডিগ্রি কোণে অবলোকন করা যাবে জাদুঘরের অন্তর্গত প্রত্নসম্পদ ও আনুষঙ্গিক নিদর্শনগুলো।

পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকুন না কেন, সহজেই দেখতে পাবেন জাদুঘরের সব সামগ্রী। লাগবে না কোনো টিকিটও, দরকার হবে না ঢোকার পথে লাইনে দাঁড়ানো। শুধু প্রয়োজন ইন্টারনেট সংযোগসহ একটি কম্পিউটার, ল্যাপটপ কিংবা মোবাইল ফোন।

ইন্টারনেটে জাতীয় জাদুঘরের ভার্চুয়াল গ্যালারিতেই দেখা যাবে সেখানে রক্ষিত প্রত্নসামগ্রী।জাদুঘর কর্তৃপক্ষ জানায়, ডিজিটাল প্রযুক্তির সাহায্যে তুলে ধরা হয়েছে জাদুঘরের নানা সামগ্রী। আর তা দেখতে ইন্টারনেটে ভ্রমণ করতে হবে www.bangladeshmuseum.gov.bd এ ঠিকানায়। ওয়েব ঠিকানায় গিয়ে ‘ভার্চুয়াল’ বাটনে ক্লিক করা মাত্রই ভেসে উঠবে জাদুঘরের সামনের চত্বর। এছাড়া সরাসরি প্রবেশের জন্য http://vt.bnm.org.bd/ ঠিকানাটি প্রযোজ্য। এরপর তীর বা অ্যারো চিহ্নে ক্লিক করতেই শুরু হবে গ্যালারি ভ্রমণ। জাদুঘরের গ্যালারিগুলো অবিকল দেখতে পারবে দর্শনার্থী।

নির্দিষ্ট ওয়েব ঠিকানায় গিয়ে দেখা গেছে, ভিজিট বাটনে ক্লিক করায় জাদুঘরের সামনের অংশ ভেসে ওঠে। এরপর তীর বা অ্যারো চিহ্নে ক্লিক করলেই নিয়ে যাওয়া হয় জাদুঘরের ভেতরে। আবহসংগীত বা ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকে বাজতে থাকে সুরেলা যন্ত্রসংগীত। পরের তীর চিহ্নে ক্লিক করলে সিঁড়ি দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় গ্যালারিতে। সেখানে রাখা সামগ্রীর ওপর ক্লিক করে আবার সুনির্দিষ্টভাবে কাছ থেকে দেখা যায় নিদর্শনটি। এভাবে একে একে বিভিন্ন গ্যালারি ঘুরে দেখার সুযোগ আছে। বাস্তবের মতোই অনলাইনে গ্যালারি ও নিদর্শনগুলো ঘুরে ঘুরে দেখা যায় এই মাধ্যমে।

ভার্চুয়াল গ্যালারি সম্পর্কে জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক মো. শওকত আলী বলেন, ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও অনেকে জাদুঘরে আসতে পারে না। তাদের জন্য সত্যিই এটি অপূর্ব সুযোগ। ঘরে বসেই ক্লিক করে দেখার সুযোগ পাচ্ছে জাদুঘরের অমূল্য সম্পদ ও নিদর্শনগুলো। এতে ছাত্র-ছাত্রীরাও উপকৃত হবে। স্কুল-কলেজে শিক্ষকরা কম্পিউটারের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পাঠদানের সুযোগ পাবেন। পাশাপাশি দেশ-বিদেশের গবেষকরাও সহজেই পেয়ে যাবেন জাদুঘরের তথ্য ও নিদর্শন।

জাতীয় জাদুঘরের আইসিটি শাখা প্রধান শহীদুর রহমান খান বলেন, বর্তমানে গুরুত্বপূর্ণ প্রায় সাড়ে তিন হাজার নিদর্শন অনলাইনে দেখা যাবে। পর্যায়ক্রমে বাকি নিদর্শনও দেখার সুযোগ মিলবে। এর মাধ্যমে জাতীয় জাদুঘরকে দেশের জনগণ ও বিশ্ববাসীর দোরগোড়ায় অত্যন্ত স্বল্প সময়ে পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে এবং এ ব্যবস্থা আরও উন্নয়নের কাজ অব্যাহত রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১১৪২ ঘণ্টা, মার্চ ৩১, ২০২০
এইচএমএস/ওএইচ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-03-31 11:42:40