bangla news
বইমেলার সেমিনারে বক্তারা

স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়তে রবীন্দ্রনাথের দর্শন চর্চা জরুরি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-০২-০৬ ১০:৪০:০৪ এএম

‘রবীন্দ্রনাথ ছিলেন অত্যন্ত বিজ্ঞানমনস্ক। কৃষি তত্ত্বের উপরও তার ধারণা ছিল সুদূরপ্রসারী। তিনি মনে করতেন, কৃষিকে উন্নত করতে হলে নতুন প্রযুক্তি দরকার। আর এজন্যই দরকার কৃষিক্ষেত্রে বিজ্ঞানের চর্চা ও প্রয়োগ।’

ঢাকা: ‘রবীন্দ্রনাথ ছিলেন অত্যন্ত বিজ্ঞানমনস্ক। কৃষি তত্ত্বের উপরও তার ধারণা ছিল সুদূরপ্রসারী। তিনি মনে করতেন, কৃষিকে উন্নত করতে হলে নতুন প্রযুক্তি দরকার। আর এজন্যই দরকার কৃষিক্ষেত্রে বিজ্ঞানের চর্চা ও প্রয়োগ।’

কথাগুলো বলছিলেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আবদুস সাত্তার মন্ডল।

রোববার অমর একুশে বইমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত ‘রবীন্দ্রনাথের কৃষি, সমবায় এবং গ্রামোন্নয়ন চিন্তা’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, এসব চিন্তাধারা থেকেই রবীন্দ্রনাথ পল্লী উন্নয়ন তথা সমবায় নীতির সুষ্ঠু প্রয়োগের লক্ষে কৃষি ব্যাংক, রেশন চাষের প্রচলন, উন্নত জাতের বীজ সংগ্রাম, শ্রীনিকেতনে কৃষি গবেষণাগার প্রতিষ্ঠা করেন।

‘আমরা যে বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখছি তা প্রতিষ্ঠা করতে রবীন্দ্রনাথের দর্শন চর্চা অত্যন্ত জরুরি।’, বলেন কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আতিউর রহমান বলেন, ‘রবীন্দ্রনাথ চেয়েছিলেন গ্রামগুলোতে আত্মশক্তিতে বলীয়ান হয়ে স্বশাসিত সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে। আর এ আত্মশক্তিকে উন্নত করার প্রধান মাধ্যম শিক্ষার উন্নয়নে শিলাইদহ, পতিসরসহ বিভিন্ন অঞ্চলে স্কুল-কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন তিনি।’

তিনি বলেন, ‘রবীন্দ্রনাথের সমবায়নীতি প্রাতিষ্ঠানিক কোনও বিষয় নয়, বরং সমষ্টির বন্ধনে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার একটি ধারণা।’

বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের চেয়ারম্যান খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ বলেন, ‘সমাজতন্ত্র-গণতন্ত্র-জাতীয়তাবাদ সব ক্ষেত্রেই আমরা রবীন্দ্রনাথের দর্শনকে গ্রহণ করতে পারি। কেননা রবীন্দ্রনাথ চেয়েছিলেন একটি উদার জনগোষ্ঠী, যেখানে মুষ্টিমেয় ব্যক্তির হাতে সম্পদ কেন্দ্রীভূত না থেকে পারস্পরিক সহমর্মিতার ভিত্তিতে সুষ্ঠুভাবে সবার মাঝে বণ্টন হবে। তিনি সমবায় প্রথার মাধ্যমে সম্পদের বিকেন্দ্রীকরণ করার পপাতি ছিলেন।’

সভাপতির বক্তৃতায় রবীন্দ্র সঙ্গীত বিশেষজ্ঞ ড. আনিসুর রহমান বলেন, রবীন্দ্রনাথের পল্লীচিন্তার মূলকথা হচ্ছে সমষ্টির স্বার্থে ব্যক্তির জ্ঞান ও দতার সুষম ব্যবহার। রবীন্দ্রনাথের সমবায় নীতি বিভিন্ন দেশে অনুসৃত হয়েছে। কুমিল্লার বার্ডের প্রতিষ্ঠাও রবীন্দ্রনাথের সমবায় নীতির প্রতিফলন।

সমবায় চিন্তা সুষ্ঠুভাবে গ্রহণের মাধ্যমেই জাতীয় সমৃদ্ধি অর্জন সম্ভব বলে মনে করেন তিনি।

আলোচনায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কথা সাহিত্যিক হাসনাত আবদুল হাই। অন্যদের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০১১

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2011-02-06 10:40:04