ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৯ শাবান ১৪৪৫

শিল্প-সাহিত্য

‘সার্বিয়া: শুভ্র শহরের দেশে’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩১, ২০২৩
‘সার্বিয়া: শুভ্র শহরের দেশে’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

ঢাকা: সার্বিয়া ভ্রমণ বিষয়ক ‌‘সার্বিয়া: শুভ্র শহরের দেশে’ বইয়ের প্রকাশনা উৎসব মঙ্গলবার (৩১ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত হয়েছে। বইটি লিখেছেন ইমদাদ হক।

প্রকাশনা অনুষ্ঠান উপলক্ষে রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমি মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক মুখ্য সচিব একুশে পদকপ্রাপ্ত কবি কামাল চৌধুরী। এতে সম্মানিত অতিথি ছিলেন এসিআই অ্যাগ্রো বিজনেসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. এফএইচ আনসারী ও অন্য প্রকাশের প্রধান নির্বাহী মাজহারুল ইসলাম।  

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেন, আমাদের জন্য এটা একটি আনন্দের দিন। ইমদাদ হক বইটি খুব ভালো লিখেছেন। বইটি সার্বিয়াকে নিয়ে লেখা হয়েছে। সেখানের বেলগ্রেড খুব উন্নত শহর। সার্বিয়াতে অনেক উন্নয়ন হচ্ছে। সেখানে কাজের সুযোগও আছে। সার্বিয়ার নতুন পররাষ্ট্র মন্ত্রী আমাদের দেশে আসবেন। ইমদাদের বই আমাদের দূতিয়ালিতেও ভূমিকা রাখবে। আমরা চাই,আমাদের পররাষ্ট্র মমন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা অন্য দেশের ওপর বই লিখুক। ভারতীয় কূটনীতিকরা এটি করে থাকেন।

কবি কামাল চৌধুরী বলেন, ইমদাদের বইটি অত্যন্ত সুলিখিত। বইটিতে অনেক তথ্য ও ছবি আছে। তবে বাংলা ভ্রমণ সাহিত্য নিয়ে বলতে গেলে প্রথমেই রবীন্দ্রনাথের কথা আসে। অন্নদাশঙ্কর রায়,  সঞ্জীবচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের কথা আসে। আর এখনো অনেক বই লেখা হয়। তবে কোনো কোনো বই, সেটা ঠিক ভ্রমণ কাহিনী না, স্মৃতি কথা, সেটা নিয়ে আমার প্রশ্ন আছে।

ইমদাদের বইটি একটি রুচিশীল ও নানন্দিক প্রকাশনা হয়েছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

ড. এফএইচ আনসারী বলেন, ভ্রমণপিয়াসীদের একটি ভালো খোরাক হবে এই বইটি। লেখক অনেক সুন্দরভাবে বইটি ফুটিয়ে তুলেছেন। তার লেখক জীবনের পরিচিতি বাড়বে বলে প্রত্যাশা করি।

অনুষ্ঠানে বইয়ের বিষয়ে আলোচনা করেন বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখক ইকতিয়ার চৌধুরী ও নাট্যকার সাধনা আহমেদ।

ইকতিয়ার চৌধুরী বলেন, আগের চেয়ে এখন মানুষের অনেক ভ্রমণ বেড়েছে। দেশের মধ্যেও বেড়েছে। দেশের বাইরেও বেড়েছে। সেই ভ্রমণের ওপর বইও বের হচ্ছে। ইমদাদের গদ্য অত্যন্ত ঝরঝরে। বইটি পড়ে মনে হবে, আমরাও তার সাথে ভ্রমণ করছি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস ইমদাদ আরো লিখবেন। তিনি আরো ভালো বই আমাদের উপহার দেবেন।

নাট্যকর সাধনা আহমেদ বলেন, বইটি শুধু ভ্রমণ কাহিনী নয়, এতে ইতিহাস, সংস্কৃতি, রাজনীতিও উঠে এসেছে। এটা উপহার দেওয়ার মতো একটি বই।

উল্লেখ্য, ইমদাদ হকের সার্বিয়া ভ্রমণে প্রাকৃতিক-ঐতিহাসিক নানা দৃশ্যপটের সঙ্গে নতুন উপজীব্য হয়ে ওঠে সার্বিয়ান এক তরুণী। ঠিক প্রেম নয়, প্রেমের চেয়ে কম কিছুও নয়। পার্থিব দৃশ্যপটের সঙ্গে উঠে এসেছে রোমান্সের হৃদয় ছোঁয়া-না ছোঁয়ার গল্পও। যার পুরো বর্ণনা এসেছে ‌‘সার্বিয়া: শুভ্র শহরের দেশে’ ভ্রমণ গদ্যে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩১, ২০২৩
টিআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।