ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১২ আগস্ট ২০২২, ১৩ মহররম ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

খুলনায় ফের চোখ রাঙাচ্ছে করোনা, বাড়ছে শনাক্ত

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২২
খুলনায় ফের চোখ রাঙাচ্ছে করোনা, বাড়ছে শনাক্ত

খুলনা: খুলনায় ফের চোখ রাঙাচ্ছে করোনা। প্রতিদিনই বাড়ছে শনাক্ত।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৮১ জনের। ৪৮ দিন পর নগরে করোনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) করোনা শনাক্ত হয়েছিল ৫৪ জনের।

এদিকে আবারও বাড়তে শুরু করেছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। তারপরও বাজার, রাস্তাঘাট বা গণপরিবহন কোথায়ও নেই সচেতনতা। করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালাচ্ছে জেলা প্রশাসন। মাইকিং করা হচ্ছে। সচেতনতামূলক প্রচারণা, মাস্ক ও লিফলেট বিতরণ করা এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে জরিমানা করাও হচ্ছে।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য বিভাগের প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে দেখা যায়, নতুন বছরের শুরুতেই সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। চলতি মাসের প্রথম দিন করোনায় আক্রান্ত নতুন রোগী ছিল মাত্র পাঁচজন। শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) সেই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮১ জনে।  

শুক্রবার দুপুরে খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. মো. মনজুরুল মুরশিদ স্বাক্ষরিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, খুলনা বিভাগের করোনা শনাক্তের সংখ্যা ৮১ জন। এর মধ্যে সীমান্তবর্তী জেলা যশোরেই ২৫ জন শনাক্ত হয়েছে। আর কুষ্টিয়ায় ১৮ জন, ঝিনাইদহে ১৫ ও খুলনায় ১৩ জন শনাক্ত হয়। এছাড়া নড়াইলে সাতজন, মাগুরায় দুজন ও সাতক্ষীরায় একজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

খুলনা বিভাগে করোনা সংক্রমণের শুরু থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত বিভাগের ১০ জেলায় মোট এক লাখ ১৩ হাজার ৯৬২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন এক লাখ নয় হাজার ২৫৭ জন। আর মোট মারা গেছেন তিন হাজার ১৯৫ জন।  

শনাক্ত সংখ্যা বিবেচনায় জেলাগুলোর মধ্যে শীর্ষে আছে খুলনা। এখানে ২৮ হাজার ৮০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া শনাক্তের সংখ্যায় সবচেয়ে কম মাগুরায় চার হাজার ১৬১ জন। করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে খুলনায়। এ জেলায় মারা গেছেন ৮০৯ জন। আর মৃতের সংখ্যায় সবচেয়ে কম সাতক্ষীরায় ৮৮ জন।

খুলনা ২০০ শয্যার ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের ফোকাল পারসন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, শুক্রবার সকাল পর্যন্ত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন নয়জন। এরমধ্যে আইসিইউতে একজন ও ইয়েলো জোনে আটজন রয়েছেন।

খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ জানান, বৃহস্পতিবার রাতে খুমেকের পিসিআর মেশিনে ১৮৮ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়। যার মধ্যে ১২২ জন খুলনা মহানগর ও জেলার। সব মিলিয়ে আটজনের করোনা পজিটিভ এসেছে। যার মধ্যে খুলনা মহানগর ও জেলার ছয়জন, সাতক্ষীরা ও যশোরের একজন করে শনাক্ত হয়েছে।

করোনা দ্রুত ছড়িয়ে পড়লেও মানুষের মধ্যে কোনো রকম সচেতনতা নেই। স্বাস্থ্যবিধি না মানার ক্ষেত্রে দিচ্ছেন একেক জন একেক রকম যুক্তি। খুলনার বাজারগুলোতে ভিড়ের পাশাপাশি বেশিরভাগ মানুষের মুখেই নেই মাস্ক। স্বাস্থ্যবিধি মানতে উদাসীন ক্রেতা-বিক্রেতাদের প্রায় সবাই।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২২
এমআরএম/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa