ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

চুল-ত্বকের উপকারী বন্ধু পুদিনা

স্বাস্থ্য ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮১৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ৪, ২০২১
চুল-ত্বকের উপকারী বন্ধু পুদিনা

পুদিনা (মিন্ট) পাতা মানুষের পরিচিত সেই প্রাচীনতম গাছগাছড়া, যা রান্নায় ব্যবহৃত হয়। এর অসাধারণ ওষুধি গুণও আছে।

এটি পলিফেনলেরও গুরুত্বপূর্ণ উৎস। এর বায়ুনাশকারী এবং অ্যান্টি স্প্যাজমোডিক বৈশিষ্ট্যও আছে। পুদিনা বা মিন্টের কড়া অথচ সজীব গন্ধ মানসিক চাপ কমাতে এবং শরীর ও মনকে তরতাজা করতে সাহায্য করে। পুদিনা অ্যাসেনশিয়াল অয়েলের ঘ্রাণ নিলে সঙ্গে সঙ্গে রক্তে সিরোটোনিন নিঃসৃত হয়, যা এটি মানসিক চাপ ও অবসাদ হ্রাস করতে সুপরিচিত।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে নিয়মিত ব্যবহার করতে পারেন পুদিনা পাতা। পুদিনা পাতা পেস্ট করে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন।

ব্রণ দূর করতে

পুদিনা পাতা পেস্ট ও গোলাপজল একসঙ্গে মিশিয়ে ব্রণের উপর লাগান। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন। এটি ব্রণ ও ব্রণের দাগ থেকে মুক্তি দেবে।

ত্বক ঠাণ্ডা রাখতে

পুদিনা পাতার রস ত্বকে লাগান। ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ত্বক ঠাণ্ডা রাখবে এটি।

বলিরেখা দূর করতে

পুদিনা পাতা পেস্ট করে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। কিছুক্ষণ পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত করলে দূর হবে ত্বকের বলিরেখা।

উকুন তাড়াতে

পুদিনার শিকড়ের রস উকুন তাড়াতে খুবই কার্যকর। পুদিনাপাতা বা শিকড়ের রস চুলের গোড়ায় লাগিয়ে একটি পাতলা কাপড় মাথায় পেঁচিয়ে রাখতে হবে। এক ঘণ্টা পর চুল শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত দুইবার করলে এক মাসের মধ্যেই চুল উকুনমুক্ত হবে।

লোমকূপ পরিষ্কার করতে

পুদিনা পাতার রসের সঙ্গে মধু মিশিয়ে ত্বকে লাগান। বিশেষ করে যেখানে ব্ল্যাকহেডস বেশি থাকে সেখানে লাগান। লোমকূপ ভেতর থেকে পরিষ্কার করবে এটি।

হজমে সাহায্য করে  

পুদিনা পাতায় প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস রয়েছে, মেন্থল আর ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস রয়েছে, যা উৎসেচকগুলিকে সাহায্য করে খাবার হজম করতে । পুদিনা পাতায় থাকা অ্যাসেনশিয়াল অয়েলের শক্তিশালী অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল এবং অ্যান্টিসেপটিক গুণাগুণ রয়েছে, যা পেট ফাঁপা কমাতে সাহায্য করে।

ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো করে

পুদিনা পাতার প্রদাহনিরোধক এবং অ্যান্টি–ব্যাকটিরিয়াল গুণাগুণ রয়েছে যা ব্রণ, পিম্পল সারাতে কাজে লাগে । পুদিনা পাতায় প্রচুর পরিমাণে স্যালিসাইলিক অ্যাসিড আছে, যা ব্রণ দূর করে । তাছাড়া এটি ত্বক পরিস্কার করতেও ভাল কাজে আসে । পুদিনার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট গুণাগুণও রয়েছে যা শরীর থেকে ফ্রি র‌্যাডিক্যাল দূর করে ত্বককে পরিষ্কার এবং তরুণ বানাতে সাহায্য করে । আর যেভাবে পুদিনা পাতা ত্বককে স্বাস্থ্যবান করে তোলে , তা হল এটি ত্বকের আর্দ্রতা দরে রাখে, মরা কোষ পরিষ্কার করে দেয় এবং ত্বক থেকে ময়লাও দূর করে দেয় । ফলে ত্বক টোনড এবং উজ্জ্বল লাগে ।

মুখের স্বাস্থ্য ভালো হয়

পুদিনা পাতা চিবোলে মুখের স্বাস্থ্য ভাল হয়, দাঁতও ভাল থাকে । পুদিনায় এসেনশিয়াল অয়েল রয়েছে, যা খেলে মুখের দুর্গন্ধ দূর হয়। মাউথওয়াশে পেপারমেন্ট অয়েল থাকে, তা মুখের ব্যাকটিরিয়া দূর করতে সাহায্য করে এবং স্বাস্থ্যকর মাড়ি ও দাঁত হয় ।

সর্দি-কাশি থেকে রেহাই

যদি কেউ সর্দি-কাশিতে ভোগেন এবং শ্বাস নিতে অসুবিধা হয়, তাহলে তাদের জন্য পুদিনা পাতা হল সেরা রেমেডি । বেশিরভাগ ভেপার রাব এবং ইনহেলারেই মিন্ট থাকে । মিন্ট প্রাকৃতিকভাবে গলা এবং নাকে জমে থাকা সর্দি দূর করে, ব্রঙ্কাইটিস সারায় এবং ফুসফুসে জমে থাকা সর্দি দূর করে । রেসপিরেটরি চ্যানেলগুলি ছাড়াও মিন্ট বার বার কাশির সমস্যাকেও দূর করে ।

বাংলাদেশ সময়: ০৮১৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৪, ২০২১
এএটি
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa