ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৮ জুলাই ২০২৪, ১১ মহররম ১৪৪৬

স্বাস্থ্য

করোনায় আরও ১৮৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬৬৮৪

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০১ ঘণ্টা, আগস্ট ১৫, ২০২১
করোনায় আরও ১৮৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬৬৮৪

ঢাকা: গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৪ হাজার ১৭৫ জনের।

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৬ হাজার ৬৮৪ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪ লাখ ১৮ হাজার ৯০২ জন। মৃত ১৮৭ জনের মধ্যে পুরুষ ১০১ জন ও ৮৬ জন নারী।      

রোববার (১৫ আগস্ট) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাছিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১১ হাজার ৩৭১ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১২ লাখ ৯২ হাজার ৬৯৮ জন। সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭০৯টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১৩৩টি, জিন এক্সপার্ট ৫৩টি, র্যাপিড অ্যান্টিজেন ৫২৩টি। এসব ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ৩১ হাজার ৪০৩টি। মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৩ হাজার একটি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৮৪ লাখ আট হাজার ৫২১টি।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ২৫ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৮৭ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯১ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭০ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ১৮৭ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে রয়েছেন ৭১ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৩৯ জন, রাজশাহী বিভাগে ১২ জন, খুলনা বিভাগে ২১ জন, বরিশাল বিভাগে আট জন, সিলেট বিভাগে ১৩ জন, রংপুর বিভাগে ১৩ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ১০ জন। এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ১৪১ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ৪২ জন এবং বাড়িতে তিন জন মারা যান। এছাড়াও একজনকে মৃত অবস্থায় হাসাপাতালে আনা হয়।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে চার জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ২০ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৪০ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ৫৮ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ৩৯ জন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে ১৪ জন, ৯১ থেকে ১০০ বছরের মধ্যে দুইজন রয়েছেন।  

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন এক হাজার ৮৯৭ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন তিন হাজার ৬৮৯ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন তিন লাখ ৪২ হাজার ৯৩০ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন দুই লাখ ৬২ হাজার ৮৫২ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৮০ হাজার ৭৮ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে।

 

বাংলাদেশ সময়: ১৭০১ ঘণ্টা, আগস্ট ১৫, ২০২১
আরকেআর/আরআইএস/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।