ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৮ জুলাই ২০২৪, ১১ মহররম ১৪৪৬

স্বাস্থ্য

করোনায় আরও ২১৫ জনের মৃত্যু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০৩ ঘণ্টা, আগস্ট ১২, ২০২১
করোনায় আরও ২১৫ জনের মৃত্যু

ঢাকা: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৩ হাজার ৬১৩ জনের।

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১০ হাজার ১২৬ জন। সবমিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩ লাখ ৯৬ হাজার ৮৬৮ জনে।

বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাছিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৩ হাজার ৯৯০ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১২ লাখ ৬২ হাজার ৬৫ জন।

সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭০৮ টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১৩৩টি, জিন এক্সপার্ট ৫৩টি, র্যাপিড অ্যান্টিজেন ৫২২টি। এসব ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ৪৫ হাজার ৯৮৮টি। মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৪৪ হাজার ৭৮টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৮৩ লাখ এক হাজার ৫৪৯টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৪৬ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৮৩ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯০ শতাংশ ৩৫ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৬৯ শতাংশ।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২১৫ জনের মধ্যে পুরুষ ১০৭ জন ও ১০৮ জন নারী। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৬৫ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৫৪ জন, রাজশাহী বিভাগে আটজন, খুলনা বিভাগে ২৮ জন, বরিশাল বিভাগে ১২ জন, সিলেট বিভাগে ২২ জন, রংপুর বিভাগে ১৬ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ১০ জন রয়েছেন। সরকারি হাসপাতালে ১৭৮ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ৩৪ জন মারা গেছেন।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, শূন্য থেকে ১০ বছরের দুইজন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে একজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে নয়জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ১৯ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ১৯ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৫৬ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ৬৩ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ৩৬ জন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে নয়জন এবং ১০০ বছরের ঊর্ধ্বে একজন রয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন দুই হাজার ৮২৭ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন তিন হাজার ৭৪২ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন তিন লাখ ৩৭ হাজার ৭১ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন দুই লাখ ৫১ হাজার ৪৮৪ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৮৫ হাজার ৫৮৭ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০০ ঘণ্টা, আগস্ট ১২, ২০২১
আরকেআর/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।