ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

ঢামেকের করোনা ইউনিটে সিট খালি নেই

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৩১ ঘণ্টা, জুলাই ৪, ২০২১
ঢামেকের করোনা ইউনিটে সিট খালি নেই

ঢাকা: করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সেই সঙ্গে হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে রোগীর চাপ।

এমনকি ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালের (ঢামেক) করোনা ইউনিটের সব সিট শেষ হয়ে গেছে। এই মুহূর্তে সেখানে নতুন রোগী ভর্তি করার মতো কোনো সিট খালি নেই। রাতে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঢামেক কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রোববার (৪ জুলাই) রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঢাকা মেডিক্যালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হক নতুন ভবনের করোনা ইউনিটের প্রতিটি ফ্লোর ঘুরে ঘুরে করোনা রোগীদের খোঁজ-খবর নেন। কর্তব্যরত চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের সহকারী পরিচালক মো. আশরাফুল দুই ওয়ার্ড মাস্টার মোহাম্মদ রিয়াজ ও আবদুল গফুরসহ আরো অনেকে।

নতুন ভবন করোনা ইউনিট থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় পরিচালক বলেন, রাতে নতুন ভবনে করোনা রোগী ভর্তি করার মতো সিট খালি নেই। সোমবার সকালের দিকে বেশ কিছু রোগী ছাড়পত্র পাওয়ার পর আবার সিট খালি হতে পারে। তবে আমাদের সাসপেক্ট ওয়ার্ডে কিছু বেড খালি আছে। রাতে সেখানে করোনায় আক্রান্ত কিছু রোগীদের ভর্তি করা হবে।

তিনি আরও জানান, করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে আক্রান্তের সংখ্যা অনেক বেড়েছে। আমাদের সঙ্গে শেখ  হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা হয়েছে। আগামীকাল সোমবার সেখানে কিছু রোগী পাঠানো হবে। তবে আমাদের হাসপাতালে ওষুধের পাশাপাশি সেন্ট্রাল অক্সিজেন, সিলিন্ডার অক্সিজেনসহ হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা পর্যাপ্ত পরিমাণে আছে। এগুলোর কোনো সংকট আমাদের এখানে নেই।

এসময় করোনা ইউনিটের নিচতলায় জরুরী বিভাগে দেখা যায়, আব্দুর রহমান (৭৫) নামে এক বৃদ্ধের প্রচুর শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। চিকিৎসকদের পাশাপাশি সঙ্গে থাকা তার ছেলে নাসির অক্সিজেনের মাস্ক ধরে রেখেছেন। যেন তার বাবা ঠিকমতো অক্সিজেন পান।

রাজধানীর মোহাম্মদবাগ এলাকা থেকে হঠাৎ শ্বাসকষ্টজনিত কারণে নাসির তার বাবাকে নতুন ভবনে করোনা ইউনিটে নিয়ে আসেন। সেখানে দায়িত্বরত কর্মকর্তা জানান, তার অক্সিজেন লেভেল ৮০ তে নেমে গেছে। তাকে অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছে, তবে তিনি করোনা সাসপেক্ট।

এদিকে নতুন ভবনের একটি সূত্র জানায়, প্রতিদিন করোনা রোগীরা প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে আসছেন। অনেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি যাচ্ছেন, আবার কেউবা মারা যাচ্ছেন। তবে মৃত্যুর সংখ্যা কম। ওই সূত্রটি আরও জানায়, গত দুই দিনে নতুন ভবনে ৯০ এর উপরে করোনা আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২২২৯ ঘণ্টা, জুলাই ০৪, ২০২১
এজেডএস/এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa