ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৮ জিলহজ ১৪৪২

স্বাস্থ্য

সিলেটে শুরু হলো সিনোফার্মের টিকা প্রয়োগ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪১৮ ঘণ্টা, জুন ১৯, ২০২১
সিলেটে শুরু হলো সিনোফার্মের টিকা প্রয়োগ টিকা দেওয়া হচ্ছে একজন শিক্ষার্থীকে। ছবি: মাহমুদ হোসেন

সিলেট: সিলেটে দ্বিতীয় ধাপে আবারও শুরু হয়েছে করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রম। শনিবার (১৯ জুন) সকাল থেকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শিক্ষার্থীদের দিয়ে এই টিকা প্রয়োগ শুরু হয়।



সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. জাহিদুল ইসলাম বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, দ্বিতীয় ধাপে চীনের সিনোফার্মের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন প্রথম দিন সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থীদের দিয়ে শুরু হয়েছে। প্রথম দিনে ভ্যাকসিন নিতে ২৬৭ জন শিক্ষার্থী উপস্থিত হয়েছেন। তবে, তাদের কতজন ভ্যাকসিন নেবেন, তা এখনো নিশ্চিত নয়। এখন থেকে টিকা কার্যক্রম প্রতিদিন চলবে। সরকারি ছুটির দিন ছাড়া শুক্রবারও টিকা কেন্দ্রগুলোতে প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত খোলা থাকবে বলেও নিশ্চিত করেন সিসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেটের তথ্যমতে, প্রথম পর্যায়ে টিকা নিতে সিলেট বিভাগে ৩ লাখ ৭৫ হাজার ৪১৬ জন রেজিস্ট্রেশন করে ৩ লাখ ৪৪২ জন প্রথম ডোজ গ্রহণ করেন। তাদের মধ্যে ২ লাখ ১৮ হাজার ৬৭২ জন দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন। প্রথম ধাপে ৭৪ হাজার ৯৭৪ জন প্রথম ডোজ থেকে এবং ৮১ হাজার ৭৭০ জন দ্বিতীয় ডোজ থেকে বঞ্চিত ছিলেন।

এবছরের গত ২৭ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিনেশন কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। এরপর ৭ ফেব্রুয়ারি দেশব্যাপী একযোগে করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম শুরু হয়।
উল্লেখ্য, চীন সরকার বাংলাদেশ সরকারকে ১১ লাখ ডোজ সিনোফার্ম ভ্যাকসিন উপহার দিয়েছে। গত শুক্রবার (১৭ জুন) চীনের তৈরি সিনোফার্মের ৩৭ হাজার ২০০ ডোজ টিকা সিলেটে এসে পৌঁছায়। টিকাগুলো সিভিল সার্জন অফিসের ইপিআই কোল্ড স্টোরে রাখা হয়েছে।

সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক, শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্র কিংবা কলেজের আইডি কার্ড নিয়ে এলেই তাদেরকে টিকা দেওয়া হবে। মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থীদের পরে সিলেট নার্সিং কলেজ, মেডিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট, বিগত দিনে টিকা থেকে বাদ পড়া চিকিৎসক-নার্স, পুলিশ সদস্য, গোরখোদক ও মরদেহ সৎকারকারী ছাড়াও বিগত দিনে যারা টিকার জন্য রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন আপাতত তাদেরকে ঠিকা দেওয়ার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সরকারি-বেসরকারি মেডিক্যাল ডেন্টাল কলেজের শিক্ষার্থীরা ছাড়াও টিকার অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত হবেন বিদেশগামী বাংলাদেশি অভিবাসীরা। সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলের শিক্ষার্থীরা। বিডার আওতাধীন ও অন্যান্য জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়নমূলক সরকারি প্রকল্প কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১৫ ঘণ্টা, জুন ১৯, ২০২১
এনইউ/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa