ঢাকা, সোমবার, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ১৭ মে ২০২১, ০৪ শাওয়াল ১৪৪২

স্বাস্থ্য

উদ্বোধনের অপেক্ষায় বান্দরবান সদর হাসপাতালের সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট

কৌশিক দাশ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৪৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ১২, ২০২১
উদ্বোধনের অপেক্ষায় বান্দরবান সদর হাসপাতালের সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট

বান্দরবান: করোনা রোগীদের জরুরি প্রয়োজনে অক্সিজেন সাপোর্ট দেওয়ার জন্য দেশের ৬২টি হাসপাতালে সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট বসানো হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় পার্বত্য জেলা বান্দরবানের সদর হাসপাতালে স্থাপন করা হয়েছে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট।

আগামী ১৩ এপ্রিল অক্সিজেন প্লান্টটি উদ্বোধন করা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।  

হাসপাতালে ভর্তিকৃত জটিল রোগীদের সার্বক্ষণিক অক্সিজেন সরবরাহ করার লক্ষ্যে বান্দরবান সদর হাসপাতাল প্রাঙ্গণে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট বসানোর কার্যক্রম শেষ হয়েছে। বিশেষ করে করোনা আক্রান্ত রোগীদের সার্বক্ষণিক অক্সিজেনের সাপোর্ট দিতে হয়। কিন্তু বান্দরবান সদর হাসপাতালে অক্সিজেনের পর্যাপ্ত মজুদ না থাকার পাশাপাশি বিভিন্ন সমস্যার কারণে বেশিরভাগ সময়ই করোনা রোগী ও জটিল রোগীদের চট্টগ্রাম বা ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এবার বান্দরবান সদর হাসপাতাল প্রাঙ্গণে ৩ কোটি ২৫ লাখ ৯৫ হাজার টাকা ব্যয়ে বসানো হয়েছে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট। আর এ প্লান্ট থেকে পাইপের মাধ্যমে পুরো হাসপাতালের ১শ’ শয্যায় অক্সিজেন সরবরাহ করার মাধ্যমে রোগীদের সার্বক্ষণিক অক্সিজেন সরবরাহ করা সম্ভব হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে কাজটি বাস্তবায়ন করছে এসপেকটা লিমিটেড। আর এ সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্টটি স্থাপন কার্যক্রম সার্বক্ষণিকভাবে তদারকি করেছে স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর বান্দরবান।  

স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর বান্দরবানের সহকারী প্রকৌশলী মো. মোরশেদুল আলম বাংলানিউজকে বলেন, এ অক্সিজেন প্লান্টটি চালু হলে বান্দরবানের রোগীরা আর অক্সিজেনের অভাবে কষ্ট পাবে না। এতে হাজার লিটার অক্সিজেন থাকবে এবং ১শ’ শয্যা বিশিষ্ট বান্দরবান সদর হাসপাতালের সব বেডের রোগীরা অক্সিজেন সেবা পাবে।  

তিনি আরও বলেন, আগামী ১৩ এপ্রিল নতুন স্থাপিত এ অক্সিজেন প্লান্টটি পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিংয়ের উদ্বোধন করার কথা রয়েছে। উদ্বোধনের পরপরই এ অক্সিজেন প্লান্ট থেকে সেন্ট্রালি অক্সিজেন সরবরাহ করা হবে পুরো হাসপাতালে।

এদিকে, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা বলছেন, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর প্রধান কারণ হচ্ছে অক্সিজেনের স্বল্পতা। হাসপাতালে থাকা অক্সিজেনের সিলিন্ডারগুলো থেকে পর্যাপ্ত অক্সিজেন দিয়ে করোনা রোগীসহ জটিল রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হয় না। এ পর্যন্ত বান্দরবানে শুধু করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে চারজন আর পর্যাপ্ত অক্সিজেনের অভাবে বান্দরবান থেকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে কয়েকশ’ করোনা রোগীসহ বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত রোগীকে। এ সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্টটি চালু হলে বান্দরবান সদর হাসপাতাল থেকে রোগীদের সার্বক্ষণিক অক্সিজেন দেওয়া সম্ভব হবে। ফলে অক্সিজেনের অভাবে কোনো রোগীকের আর অন্য হাসপাতালে পাঠাতে হবে না।


বান্দরবানের সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু মারমা বাংলানিউজকে বলেন, এর আগে বান্দরবান সদর হাসপাতালে আগত অনেক করোনা রোগী পর্যাপ্ত অক্সিজেনের অভাবে কষ্ট পেয়েছে এবং অনেক রোগীকে আমরা চট্টগ্রামে জরুরিভাবে পাঠিয়েছি। তবে এবার এ সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্টটি চালু হলে রোগীদের প্রয়োজন মতো অক্সিজেন সেবা দেওয়া যাবে।  

তিনি আরও বলেন, আমরা সদর হাসপাতালের প্রতিটা রোগীর শয্যার পাশে অক্সিজেনের সংযোগ দিয়েছি এবং যাদের অক্সিজেন দরকার হবে, তারা অক্সিজেন পাবে।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসাসেবা নিরবচ্ছিন্ন ও অব্যাহত রাখতে এ উদ্যোগ নিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়। তিন পার্বত্য জেলার মধ্যে বান্দরবান সদর হাসপাতালে প্রথম এ সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট স্থাপন করা হলো।  

বাংলাদেশ সময়: ১১৩৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ১২, ২০২১
এসআই


 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa