ঢাকা, রবিবার, ২২ মাঘ ১৪২৯, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৩ রজব ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

সিলেটে টিকা গ্রহিতা ৪৪ হাজার ছাড়িয়ে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৫৩৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২১
সিলেটে টিকা গ্রহিতা ৪৪ হাজার ছাড়িয়ে

সিলেট: করোনা টিকা গ্রহণে আগ্রহ বেড়েই চলেছে সিলেটে। শুরুতে মানুষের মনে শঙ্কা দেখা দিলেও তা এখন স্বাভাবিক হতে চলেছে।

বিশেষ করে সিলেট নগর ও জেলা সদরগুলোতে টিকা গ্রহণ জনসাধারণের মধ্যে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে।

গত ৫ দিনে বিভাগের ৪ জেলায় করোনা ভ্যাকসিন ডোজ গ্রহিতা ৪৪ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। শুধু বৃহস্পতিবারই (১১ ফেব্রুয়ারি) আরো ১৫ হাজার ৭৩৯ জন টিকা নিয়েছেন। এরমধ্যে পুরুষ ১০ হাজার ২৫৬ এবং নারী ৫ হাজার ৪৮৩ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বৃহস্পতিবার সিলেটে ৫ হাজার ৫৪৮ জন করোনার ডোজ নিয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ ৩ হাজার ৫৭৬ এবং নারী ১ হাজার ৯৭২ জন। একই দিনে সুনামগঞ্জে টিকা গ্রহণকারী ৩ হাজার ১৫১ জনের মধ্যে পুরুষ ২ হাজার ১৬৩ জন এবং নারী ৯৮৮ জন। হবিগঞ্জে ২ হাজার ১৫৭ টিকা গ্রহণকারীর মধ্যে পুরুষ ১ হাজার ৯০৭ জন এবং নারী ৯৫০ জন। মৌলভীবাজারে ৪ হাজার ১৮৩ জনের মধ্যে পুরুষ ২ হাজার ৬১০ এবং নারী ১ হাজার ৫৭৩ জন।       

তিনি জানান, গত ৭ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৪৪ হাজার ৯৩৪ জন করোনার ডোজ নিতে অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করেছেন। এরমধ্যে গত ৫ দিনে বিভাগে ৫ দিনে ৪৪ হাজার ১৯০ জন করোনার টিকা গ্রহণ করেছেন। বিভাগের মধ্যে এ পর্যন্ত সিলেটে রেজিস্ট্রেশনকৃত ২১ হাজার ৩৩৬ জনের বিপরীতে ১৫ হাজার ৯৬৪ জন টিকা নিয়েছেন। সুনামগঞ্জে ১১ হাজার ৬৮ জনের বিপরীতে ৯ হাজার ৯৭ জন, হবিগঞ্জে ১২ হাজার ৫৩০ জন রেজিস্ট্রেশন করলেও টিকা নিয়েছেন ৭ হাজার ৪০২ জন এবং ১১ হাজার ৭২৭ জন করোনার টিকা নিয়েছেন।

ডা. আনিসুর রহমান আরও বলেন, বিভাগে ৪ লাখ ৪৪ হাজার ডোজ টিকার বিপরীতে ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রথম স্লেপে অর্ধেক ডোজ দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে কাজ চলছে।  

সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ মণ্ডল বলেন, জেলায় ২ লাখ ২৮ হাজার ডোজ টিকার মধ্যে ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে অর্ধেক লক্ষ্যমাত্রা পূরণের পর টিকার দ্বিতীয় লট আসলে নতুনভাবে চালু করা হবে।  

তিনি বলেন, করোনা ভ্যাকসিন নিতে মানুষের মধ্যে শঙ্কা কাজ করছিল। সেই শঙ্কা এখন আর নেই। তবে গ্রামের মানুষ করোনা নেই, এমন ভ্রান্ত ধারণা থেকে টিকা গ্রহণে এখনো পিছিয়ে রয়েছেন। অবশ্য মফস্বলের লোকজনকে সচেতন করতে প্রচারণার কাজ চলছে। পাশাপাশি রেজিস্ট্রেশন ঝামেলা এড়াতে তাদেরকে কেবল জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে টিকা কেন্দ্রে গেলে বুথে রেজিস্ট্রেশন করিয়ে সহজে টিকা নিতে পারবেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেটের তথ্যমতে, প্রথমদিনে গত রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি) বিভাগের চার জেলায় ২ হাজার ৩৯৬ জন টিকা গ্রহণ করেন। এরমধ্যে পুরুষ ১ হাজার ৭৪৭ জন এবং মহিলা ৬৪৯ জন। দ্বিতীয় দিনে সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) এই সংখ্যা আরো বেড়েছে। বিভাগের চার জেলায় ৩ হাজার ৯৫৪ জনের মধ্যে ২ হাজার ৮৮৫ জন পুরুষ ও ১ হাজার ৬৯ জন মহিলা টিকা নিয়েছেন।

তৃতীয় দিনে মঙ্গলবার (০৯ ফেব্রুয়ারি) টিকা গ্রহণকারীর সংখ্যা দ্বিগুন বেড়েছে। এদিন বিভাগে সর্বমোট ৮ হাজার ৫৫৯ জন টিকা নিয়েছেন। এরমধ্যে ৬ হাজার ২০৮ জন পুরুষ ও ২ হাজার ৩৫১ জন মহিলা। ৪র্থ দিন বুধবার সিলেট বিভাগের চার জেলায় টিকা নিয়েছেন ১৩ হাজার ৫৪৩ জন। এরমধ্যে ৯ হাজার ৩৬৯ পুরুষ ও ৪ হাজার ১৭৪ জন মহিলা টিকা নিয়েছেন। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) আরও ১৫ হাজার ৭৩৯ জন টিকা নিয়েছেন। এরমধ্যে পুরুষ ১০ হাজার ২৫৬ এবং নারী ৫ হাজার ৪৮৩ জন।

বাংলাদেশ সময়: ০৫১২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২১
এনইউ/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa