bangla news

করোনা: বগুড়ায় ২ জনের মৃত্যু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৬-০৬ ৩:০১:০২ পিএম
ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

বগুড়া: বগুড়ায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় এ রোগে মারা গেছেন ছয়জন। এছাড়া, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গ নিয়ে আরও ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (৬ জুন) দুপুর ২টার দিকে বাংলানিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) শফিক আমিন কাজল।

তিনি জানান, ওই দু’জনসহ বগুড়ায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। ৫ জুন রাত পর্যন্ত বগুড়ায় মোট ৫৬৯ জন আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয় এবং তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৪৯ জন।

মৃত দু’জন হলেন- সাবেক পরিসংখ্যান কর্মকর্তা এজেএম ইদ্রিস আলী (৬৭) এবং বগুড়া কলেজের সাবেক অধ্যাপক আশরাফুল ইসলাম (৫৬)।

জানা যায়, সদর উপজেলার সূত্রাপুর রিয়াজ কাজী লেন এলাকার বাসিন্দা দুপচাঁচিয়ার সাবেক পরিসংখ্যান কর্মকর্তা এজেএম ইদ্রিস আলীর শরীরে কিছুদিন আগে উপসর্গ দেখা দেয়। তার মেয়ে চিকিৎসক হওয়ায় তাকে বাড়িতে রেখেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। তার নমুনা পরীক্ষায় করোনা ভাইরাস পজিটিভ আসে। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত ৪ জুন তাকে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ৪৮ ঘণ্টা পর শনিবার ভোর ৫টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

অন্যদিকে, ধাওয়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা বগুড়া কলেজের সাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আশরাফুল ইসলামকে অসুস্থ অবস্থায় কয়েকদিন আগে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নমুনা পরীক্ষায় কোভিড-১৯ পজিটিভ হওয়ায় তাকে গত ২ জুন মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সকাল ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

মোহাম্মদ আলী হাসপাতাপলের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) শফিক আমিন কাজল বাংলানিউজকে জানান, মৃত দুই ব্যক্তির মরদেহ জীবাণুমুক্ত করে হাসপাতাল চত্বরেই জানাজা করে দাফনের জন্য পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০০ ঘণ্টা, জুন ০৬, ২০২০
কেইউএ/এফএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বগুড়া করোনা ভাইরাস
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-06-06 15:01:02